মোঃ ইউসুফ আলী, আটোয়ারী(পঞ্চগড়) থেকেঃ পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলা থেকে অপহরণ হওয়া কিশোরী (১৫)কে তেঁতুলিয়া উপজেলা থেকে উদ্ধার করেছে আটোয়ারী থানা পুলিশ। জানাগেছে, পঞ্চগড় সদর উপজেলার মালাদাম নলেহাপাড়া গ্রামের মোঃ মানিক এর পুত্র দুই সন্তানের জনক রাজমিস্ত্রি কবিরুল ইসলাম(সবুজ)(৩৫) দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার রাধানগর হাজী সাহার আলী উচ্চ বিদ্যালয় ভবনের নির্মাণের শ্রমিক হিসেবে কাজ করে আসছিল।

বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় ওই কিশোরীর বাড়ি হওয়ায় লম্পট রাজমিস্ত্রি কবিরুল ইসলাম (সবুজ) নির্মাণ কাজের ফাঁকে প্রায় সময় তাদের বাড়িতে যাতায়াত করতো। কিশোরী রাধানগর হাজী সাহার আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। বাড়ির লোকজনের অনুপস্থিতিতে গত ০৬ অক্টোবর লম্পট রাজমিস্ত্রি সবুজ বিভিন্ন প্রলোভন দিয়ে ফুসলিয়ে কিশোরীকে নিয়ে উধাও হয়।

কিশোরীর পিতা তার আত্মীয়স্বজনদের বাড়িতে খোজাখুজি করে সন্ধান না পেয়ে গত ০৭ অক্টোবর আটোয়ারী থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। মামলা নং -০৪, তারিখ: ০৭/১০/২০২০। আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইজার উদ্দীনের দিক নির্দেশনা ও পরামর্শ মোতাবেক পুলিশের একটি চৌকশ দল অপহরণ হওয়া কিশোরী উদ্ধারের কার্যক্রম চালাতে থাকেন।

গত ১০ অক্টোবর এসআই মোকারম হোসেনের নেতৃত্বে এএসআই এনামুল হক সহ আটোয়ারী থানা পুলিশের একটি দল রাত প্রায় দশ টার দিকে তেঁতুলিয়া উপজেলার শালবাহান দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকা হতে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে। এসআই মোকারম বলেন, পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কিশোরীকে ফেলে অপহরণকারী রাজমিস্ত্রি কবিরুল ইসলাম (সবুজ) পালিয়ে গেছে।

তিনি জানান, রাজমিস্ত্রির কাজ করতে গিয়ে বিভিন্ন এলাকায় নারী কেলেঙ্কারীর একাধীক অভিযোগ তার রয়েছে। ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে পঞ্চগড় হাসপাতালে ডাক্তারী প্রয়োজনীয় পরীক্ষা করা হচ্ছে। পরে আদালতের মাধ্যমে ভিকটিমকে তার অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এব্যাপারে আটোয়ারী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইজার উদ্দীন অপহরণ মামলার ভিকটিম উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য