সামসউদ্দীন চৌধুরী কালাম, পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে অক্টোবর মাসকে দেশজুড়ে ‘গ্রামীণ সড়ক রক্ষনাবেক্ষণ মাস’ ঘোষণা করেছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর (এলজিইডি)। এরই অংশ হিসেবে পঞ্চগড় জেলার পাঁচ উপজেলায় একসাথে সড়ক সংস্কার ও সেতু মেরামতের কাজ শুরু করেছে পঞ্চগড় এলজিইডি। এসব সড়ক ও সেতু সংস্কারের কাজ শেষ হলে জেলার গ্রামীণ সড়কগুলোতে যানবাহন চলাচলে আর কোন সমস্যা হবে না।

পঞ্চগড় এলজিইডি সূত্রে জানা গেছে, পঞ্চগড় জেলায় বিগত বন্যা ও অতি বর্ষণে জেলায় ব্যাপকভাবে গ্রামীণ অনেক কাঁচা-পাকা সড়ক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পানির ¯্রােতে অনেক সেতু ও কার্লভার্ট এর এপ্রোচ ক্ষতিগ্রস্থ হয়। অনেক স্থানে যানবাহন চলাচল একেবারে বন্ধ হয়ে যায়। এলজিইডি’র উদ্যোগে তাৎক্ষণিকভাবে অনেক সড়ক ও সেতু মেরামত করে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখা হয়। সরকার চলতি অক্টোবর মাসকে ‘গ্রামীণ সড়ক রক্ষনাবেক্ষণ মাস’ ঘোষণার পরই জেলার সকল উপজেলায় একসাথে কাজ শুরু করেছেন এলজিইডি’র কর্মকর্তা-কর্মচারী ও প্রকল্পভূক্ত শ্রমিকরা।

প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এসব রক্ষনাবেক্ষণ করা তদারকি করছেন প্রতিটি উপজেলার প্রকৌশলীরা। প্রকল্পভূক্ত নারী শ্রমিকরা সড়কের দু’পাশ্বের জঙ্গল পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখাসহ মাটি দিয়ে সড়ক রক্ষার কাজ অব্যাহত রেখেছে। এ ছাড়াও মোবাইল মেইনটেনেন্স এর মাধ্যমে সড়কের পাকা অংশে ক্ষতিগ্রস্থ জায়গা মেরামত করা হচ্ছে।

পঞ্চগড় এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী শামছুজামান বলেন, গ্রামীণ সড়কের ক্ষয়ক্ষতির হার কমিয়ে সড়ক ব্যবহারকারীদের সম্পৃক্ত করে সড়কের স্থায়িত্বকাল বৃদ্ধি, সড়ক যোগাযোগ নিরাপদ করা, সম্পদের সর্বোত্তম ব্যবহার নিশ্চিতকরণ এবং সংশ্লিষ্টদের উক্ত কাজে অনুপ্রাণিত ও উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে বছরব্যাপী সড়কের নিয়মিত সংস্কার কাজ অব্যাহত রাখা এই কর্মসূচির মূল উদ্দেশ্য। পঞ্চগড় এলজিইডি’র সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এ বিষয়ে সার্বক্ষণিক তৎপর রয়েছে বলে তিনি জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য