দিনাজপুর সংবাদাতাঃ বিরামপ্রু উপজেলার হাট-বাজার মনিটারিং ব্যবস্থা না থাকায় ভুক্তা অধিকার আইন বাস্তবায়ন হচ্ছে না। স্থানীয় প্রশাসন ওজন প্রতিনিধিগণ নিয়মিত বাজার মনিটরিং না করায় খুচরা বিক্রেতাগণ ইচ্ছামত দাম আদায় করছে বলে ক্রেতাগণ ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।

গত এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চাউলের অবস্থা হয়ে উঠেছে প্রতি কেজি চালের মুল্য বৃদ্ধি পেয়ে ৫ থেকে ৭ টাকা, আলু প্রতি কেজিতে বৃদ্ধি পেয়েছে ৭ থেকে ৮টাকা, পটল প্রতি কেজিকে বৃদ্ধি পেয়েছে ১০ থেকে ১৫টাকা এবং ৫০ টাকার বেগুন ৮০ টাকা, ৩০ টাকার লাউ ৬০টাকা, ৮০ টাকার কাঁচা মরিচ ২০০ টাকা, সয়াবিন তেল প্রতি লিটারে ১০ থেকে ১৫ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে।

পিয়াজ আগের মতো প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৭০/৮০ টাকা। তবে মাছ-মাংসের মুল্য আগের মতোই স্থীতিশীল আছে বলে হাট-বাজারের ক্রেতা ভোক্তাগণ জানিয়েছে।

স্থানীয় হাট বাজারের পাইকারী খূচরা বিক্রেতা দোকানগুলোতে পণ্য সামগ্রীর মূল্য তালিকার চার্ট প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঝুলিয়ে না দেওয়ায় ইচ্ছামতো পণ্য সামগ্রীর বেশি দাম নেওয়া হচ্ছে বলে ভুক্তভোগীগণ জানিয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য