অস্ট্রেলিয়ায় টানা তিন দিন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা যায়নি। তবে বৃহৎ নগরী মেলবোর্নে এখনো সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সেখানে লকডাউন আরো দীর্ঘ হতে পারে।

দক্ষিণপূর্বের রাজ্য ভিক্টোরিয়ায় শনিবার ১৪ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়। এই রাজ্যের রাজধানী মেলবোর্ন। ভিক্টোরিয়ায় গত দুই সপ্তাহে প্রতিদিন গড়ে ৯ দশমিক ৫ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে। এই গড় পাঁচের নিচে নেমে আসলে বিধিনিষেধ শিথিল বা তুলে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে রাজ্য সরকার।

ভিক্টোরিয়ার গভর্নর ড্যানিয়েল অ্যান্ড্রুস টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘‘আমরা অনেকেই আশা করছি হয়তো আগামী রোববারই আমরা বড় কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করতো পারবো। কিন্তু আমার মনে হচ্ছে তেমনটা হবে না।

‘‘এখানে শর্টকাটের কোনো সুযোগ নেই। নাহলে হয়তো আমরা পাঁচ মিনিটের জন্য বাইরে রোদে যেতে পরবো এবং আমাদের আবারও ঘরে ফিরে যেতে হবে এবং পুরো গ্রীষ্মকাল কিংবা হয়তো পুরো ২০২১ সাল ঘরেই কাটাতে হবে।”

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য নিউ সাউথ ওয়েলসে শনিবার তিনজন নতুন রোগী শনাক্ত হয়; কুইন্সল্যান্ডে একজন।

করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে অস্ট্রেলিয়ার সাফল্য প্রশংসনীয়। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মাত্র ২৭ হাজার ২০০ জন এ রোগে আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন ৮৯৭ জন।

প্রতিবেশী দেশ নিউজিল্যান্ডে শনিবার চারজন নতুন রোগী শনাক্ত হয়। তাদের সবাই ভ্রমণ থেকে ফিরে কোয়ারেন্টিনে ছিলেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য