জার্মানিতে মানুষ সামাজিক দূরত্ব এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে লাগামহীনভাবে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

সেক্ষেত্রে গড়ে দৈনিক নতুন করে ১০ হাজার মানুষ আক্রান্ত হতে পারে বলে তারা আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

জার্মানির সংক্রামক রোগ বিষয়ক রবার্ট কখ ইনস্টিটিউটের (আরকেআই) প্রধান বলেছেন, “বর্তমান পরিস্থিতিতে আমি খুবই উদ্বিগ্ন। আগামী কয়েক সপ্তাহে পরিস্থিতি কী দাঁড়াবে তা আমরা জানি না।”

তিনি বলেন, “আমরা হয়ত দৈনিক ১০ হাজারের বেশি নতুন রোগী শনাক্ত হতে দেখব। ভাইরাসের এমন লাগামহীন বিস্তারের আশঙ্কা আছে।”

বিবিসি জানায়, জার্মানিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ৪ হাজার ৫৮ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। ইউরোপের অন্যান্য দেশগুলোর তুলনায় জার্মানির এই সংক্রমণ কিছুটা কম হলেও এপ্রিলের পর দেশটিতে একদিনে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এটিই সর্বোচ্চ।

জার্মান স্বাস্থ্যমন্ত্রী ইয়েন্স স্পন করোনাভাইরাস সংক্রমণের এই ঊর্ধ্বগতি ‘উদ্বেগজনক’ মন্তব্য করে বলেছেন, জার্মানদের আত্মতুষ্ট হলে চলবে না।

করোনাভাইরাস মহামারী প্রথম দফায় নিয়ন্ত্রণে সফল হয়ে বিশ্বে প্রসংশা কুড়িয়েছিল জার্মানি। সেই দেশেই এখন গত কয়েকদিন ধরে সংক্রমণে ঊধ্র্বগতি দেখা যাচ্ছে।

এর পরিপ্রেক্ষিতে ইয়েন্স স্পন বলেছেন, “আমাদের অর্জনকে নিয়ে জুয়া খেলা যাবে না। রাজধানীর পরিস্থিতিই বলে দিচ্ছে আমরা কতটা উদাসীন। কোনও কোনও সময় মহামারী নিয়ে আমাদের এই উদাসীনতা এবং অসচেতন কর্মকাণ্ড দ্রুতই পরিস্থিতিকে ভিন্ন পথে পরিচালিত করতে পারে।”

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য