নোয়াখালির বেগমগঞ্জে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনসহ সারাদেশে ধর্ষণ, নিপীড়ন ও সহিংসতা বন্ধ ও ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে রংপুরে পৃথকভাবে তিনটি মানববন্ধন সমাবেশ হয়েছে। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) সকালে রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধ ছাত্র-জনতা’ ও সর্বস্তরের সাধারণ শিক্ষার্থী’র ব্যানারে পৃথকভাবে এই কর্মসূচি পালন করা হয়। একই দাবিতে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে মানববন্ধন সমাবেশ করেছে বহ্নিশিখা ও গ্রীণ ভয়েসসহ বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন।

তিন ঘণ্টাব্যাপী চলা এই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে বক্তারা ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করতে সরকার প্রধানের প্রতি আহ্বান জানান। তারা বলেন, সিলেটের এমসি কলেজে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণের পর নোয়াখালীতে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন। এভাবে একের পর এক ধর্ষণ ও নারীর প্রতি নিপীড়ন, নির্যাতন বেড়েই চলছে। বিচারহীনতার সংস্কৃতি ও আইনি প্রক্রিয়ার দীর্ঘ সূত্রতার কারণে নারীরা আজ ঘরে বাইরে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল গঠন করে সর্বোচ্চ শাস্তির মাধ্যমে ধর্ষণের বিরুদ্ধে সরকারের অবস্থান স্পষ্ট করতে হবে।

বক্তৃতায় অভিযোগ করা হয়, ধর্ষকদের অধিকাংশই ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মী। সরকার চাইলে নিজের দলের নেতা-কর্মীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিয়ে এসব ন্যাক্কারজনক কর্মকাণ্ড বন্ধ করতে পারে। কিন্তু তা না করে, আইনের ফাঁকফোঁকড় দিয়ে তাদের মুক্তির ব্যবস্থা করা হয়। একারণে প্রতিদিন অসংখ্য অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। অবিলম্বে ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও জানান তারা।

প্রেসক্লাব চত্বরে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে রংপুর জিলা স্কুল, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় ও কারমাইকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা ও গণজাগরণ মঞ্চ, জাগো রংপুর, জনতার রংপুর, ছাত্র অধিকার পরিষদ, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ, কারমাইকেল কাইজেলিয়া শিক্ষা-সংস্কৃতি সংসদ, আমরাই পাশে রংপুর, সেবক বন্ধু স্বেচ্ছাসেবি সংগঠনসহ প্রায় ২৫টির বেশি সামাজিক সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবি সংগঠন সংহতি জানিয়ে কর্মসূচিতে অংশ নেন।

এতে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের রংপুুুর জেলা আহ্বায়ক হানিফ খান সজিব, যুগ্ম আহ্বায়ক ইমরান আহমেদ চাঁদ, যুগ্ম আহ্বায়ক ইমরান কবীর, সদস্য শাহ্ আলম, ইয়াসির আরাফাত, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য চিনু কবীর, নিপু আক্তার, আশিকুর রহমান, সাবেক ছাত্রনেতা পলাশ কান্তি নাগ, সংস্কৃতিকর্মী নাসির সুমন, জনতার রংপুর এর আহবায়ক ডা. সৈয়দ মামুনুর রহমান প্রমুখ।

এছাড়াও রংপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে ধর্ষণের প্রতিবাদে নারী সংগঠনসহ ছাত্র সংগঠনের পক্ষে থেকে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য