তিন দিন পর স্থানীয় সময় সোমবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন করোনায় আক্রান্ত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর হোয়াইট হাউসের ব্যালকনিতে মাস্ক ছাড়া অবস্থায় দেখা গেছে ট্রাম্পকে। যদিও এই হোয়াইট হাউসে ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকজন কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর সোমবার ট্রাম্প একটি টুইট বার্তায় লিখেছেন,২০ বছর আগে যেমনটা বোধ করতাম এখন তার চেয়ে অনেক ভাল অনুভব করছি। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর প্রশ্ন উঠেছে যে ট্রাম্প এখন ঝুঁকিমুক্ত কিনা ?

মার্কিন সম্প্রচারমাধ্যম সিএনএন জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে এক সঙ্গে তিনটি ওষুধের মাধ্যমে করোনা চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে যা বিশ্বের আরো কোন করোনা রোগীকেই দেওয়া হয়নি। জানা গেছে, অ্যান্টিবডি থেরাপি, রেমিডেসিভির, ডেক্সামেথাসোন এই তিনটি দিয়েই ট্রাম্পের চিকিৎসা চলেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটির স্কুল অব পাবলিক হেলথের প্রফেসর ড. লিয়ানা ওয়েন বলেন, ট্রাম্পের হাসপাতাল ছাড়া মানে এই নয় যে তিনি করোনামুক্ত হয়ে গেছেন। প্রাথমিকভাবে সে ভালো আছে। প্রকৃতপক্ষে অনেক রোগীকে হাসপাতালে প্রথমে আসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে বাসায় যাওয়ার পর পরিস্থিতি অনেকেরই আরো খারাপ হয়। সুতরাং আমাদের মাথায় রাখতে হবে এখনকার মতো সুস্থ আছেন ট্রাম্প। তবে আমরা স্বস্তির নিশ্বাস ফেলতে পারবো না কারন এখনো করোনামুক্ত হননি তিনি এবং এটি শেষ হতে এখনও কিছু সময় লাগবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য