দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর হাজী ােহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হাবিপ্রবির দুই ছাত্র হত্যা মামলার ৬ জন আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

দিনাজপুর চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী-১ (সদর) আদালতের বিচারক সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রে শিশির কুমার বসু এই আদেশ দেন।

কারাগারে প্রেরণকৃত আসামীরা হলেন-শহরের মুন্সিপাড়া মহল্লার রফিকুল ইসলামের ছেলে রকিবুল ইসলাম মিথুন (২৫),পুলহাট কসবা এলাকার হামিদুর রহমানের ছেলে মাহামুদুর রহমান মাসুম((৩৫), রামনগর এলাকার নাজির হোসেনের ছেলে নাহিদ আহম্মেদ নয়ন (৩৫), ঘাসিপাড়া এলাকার আহসানুল্লাহর ছেলে মমিনুল ইসলাম মোমেন(২৮), ক্ষেত্রিপাড়া এলাকার মৃত শরিফুল আহসান লালের ছেলে তায়েফ বিন শরিফ(৩৫)ও ফুলবাড়ী উপজেলার স্বজন পুকুর গ্রামের ড্রাইভার আব্দুল মজিদের ছেলে নাজমুল ইসলাম মাসুস (২৮)।এরা সবাই ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছা সেবকলীগের নেতা কর্মী।

কোট পুলিশ পরিদর্শক ইসরাইল হোসেন জানান, ৫ সেপ্টম্বর দিনাজপুর হাজী ােহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় হাবিপ্রবির দুই ছাত্র হত্যা মামলার ৬ জন আসামী আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করেন। বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ১৬ এপ্রিল ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় আহত হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র জাকারিয়া ও কৃষি বিভাগের ছাত্র মাহমুদুল হাসান মিল্টন। পরে দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যান।

খুনের ঘটনায় নিহতদের পরিবারের পক্ষ থেকে পৃথক দুটি মামলায় ৪১ জনকে আসামি করা হয়। একইসঙ্গে কোতোয়ালি থানার এসআই আব্দুল নুর বাদী হয়ে অজ্ঞাত ৫০/৬০ জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। গত বছরের মার্চে মামলা গুলো পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডিতে) স্থানান্তরিত হয়।

কিন্তু দীর্ঘ পাঁচ বছরেও মামলার কোনও কুলকিনারা না হওয়ায় চলতি বছরের জানুয়ারী মাসে দুই নিহত ছাত্রলীগ নেতা জাকারিয়া ও মাহমুদুল হাসান মিল্টনের বাবা-মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। ছেলে হারা দুই পরিবারের বাবা-মাকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অর্থনৈতিকভাবে সহায়তাসহ সুষ্ঠু বিচারের আশ্বাস দেন।

মামলার তদন্ত শেষে ২৯ জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সিআইডির ওসি রমজান আলী আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের ২৬ জনের বিরুদ্ধে দিনাজপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতের-১ (সদর)-এ চার্জশিট দাখিল করেন।

এই মামলায় দিনাজপুর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি (অব্যাহতি প্রাপ্ত) প্রধান আসামী আবু ইবনে রজব, দিনাজপুর সরকারি কলেজের ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সাব্বির আহম্মেদ সুজন, ছাত্রলীগ নেতা হারুনুর রশিদ রায়হান জেল হাজতে রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য