কুড়িগ্রামের রাজারহাটে এক যুবককে এলোপাতারি ছুরিকাঘাত করে অটোরিক্্রা ছিনতাই করার চেষ্টা করার সময় জনতা এক ছিনতাইকারীকে হাতে-নাতে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৪অক্টোবর রোববার রাত আনুমানিক ৯ঘটিকার সময় রংপুর- কুড়িগ্রাম আরকে রোডের সেলিমনগর এলাকায়।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, উপজেলার হরিশ্বর তালুক দেউলা বিল এলাকার ঘর জামাতা আঃ লতিফ (৩৫) এর অটো রিক্্রা ভাড়া করে ৪অক্টোবর রোববার একই এলাকার খলিলুর রহমানের পুত্র সাইফুল ইসলাম(২৫), সোলায়মান আলীর পুত্র হাফিজুর ইসলাম(২৩) ও ছিনাই ইউনিয়নের মহিধর খন্ডক্ষেত্র গ্রামের সুজন মিয়া(২৫) নামের ৩যুবক।

তারা রিক্্রার যাত্রী সেজে সেলিম নগর এলাকার ফাঁকা জায়গায় পৌচ্ছিলে রিক্্রা চালক আঃ লতিফকে গলাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে এলোপাতারী ছুরিকাঘাত করে। এ সময় তার আত্মচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে আসলে ছিনতাইকারীরা পালানোর চেষ্টা করে।

এ সময় ২জন পালিয়ে গেলেও সাইফুল ইসলামকে জনতা আটক করে। এলাকাবাসীরা গুরুত্বর আহত আঃ লতিফকে উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। তার অবস্থা আশংকাজনক বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানিয়েছে। খবর পেয়ে রাজারহাট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে আটক ওই যুবককে পুলিশের হাতে সোপর্দ করে।

কুড়িগ্রাম-লালমনিহাট সীমান্তবর্তী হওয়ায় রাজারহাট থানা পুলিশ লালমনিরহাট সদর থানার পুলিশের কাছে আটক যুবককে হস্তান্তর করেন বলে রাজারহাট থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ মোঃ রাজু সরকার নিশ্চিত করেন। এ ব্যাপারে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে বলে থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য