ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ব্যারাকপুরের বিজেপি নেতা মণীশ শুক্লাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। রবিবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। মণীশ হত্যার প্রতিবাদে বিজেপি সোমবার ব্যারাকপুরে ১২ ঘণ্টার বনধ ডেকেছে। এই হত্যাকাণ্ডের জন্য রাজ্যের ক্ষমতাসীন দল তৃণমূল কংগ্রেসকে দায়ী করেছে বিজেপি। তবে তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি অনলাইনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিজেপির ব্যারাকপুর সাংগঠনিক জেলার সদস্য ছিলেন মণীশ। এ ছাড়া তিনি কাউন্সিলরও ছিলেন। স্থানীয় একটি থানার কাছে দাঁড়িয়ে এলাকার লোকজন ও দলের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আলাপ করছিলেন মণীশ। সে সময় আকস্মিক গুলির ঘটনাটি ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীদের ভাষ্য, কয়েকজন ব্যক্তি মোটরসাইকেলে করে ঘটনাস্থলে আসেন। তারা খুব কাছ থেকে মণীশকে লক্ষ্য করে কয়েকটি গুলি ছোড়েন। তার শরীরে একাধিক গুলি লাগে। এক সঙ্গীও গুলিবিদ্ধ হন। হাসপাতালে নেওয়া হলে মণীশকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এই হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছেন। গতকাল গভীর রাতে তিনি টুইট করে নিন্দা জানান। এই খুনের ঘটনায় রাজ্যপাল পুলিশের ডিজিকে তলব করেছেন। এ ছাড়া রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিবকেও রাজভবনে ডেকেছেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের ভাষ্য, বিজেপির অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বের জেরেই মণীশ খুন হয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য