দক্ষিণ ককেশাসের নাগোর্নো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে সম্প্রতি যে সংঘর্ষ শুরু হয়েছিল তা দ্বিতীয় সপ্তাহে গড়িয়েছে। বিতর্কিত ওই এলাকা নিয়ে এখনো আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ার মধ্যে যুদ্ধ অব্যাহত রয়েছে, এ সংঘর্ষ থামার কোনো লক্ষ্মণ নেই।

এরইমধ্যে সংঘর্ষ নাগার্নো-কারাবাখের বাইরে ছড়িয়ে পড়েছে যদিও আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে যুদ্ধবিরতির প্রচেষ্টা চলছে।

নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চলটি আজারবাইজানের বলে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত কিন্তু ১৯৯০’র দশক থেকে সেটি আর্মেনিয়ার নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। গত ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে নাগার্নো-কারাবাখ নিয়ে আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে নতুন করে সংঘর্ষ শুরু হয়। এজন্য দু’দেশ পরস্পরকে দায়ী করেছে।
আজারবাইজান অভিযোগ করেছে আর্মেনিয়া ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাচ্ছে

এদিকে, আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আর্মেনিয়া থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছোঁড়ার ঘটনা তাদের রাডার সিস্টেমে ধরা পড়েছে। আজ সকালের দিকে ওই হামলা হয় বলে দাবি করেছে আজারবাইজান। অন্যদিকে রাশিয়ার স্পুৎনিক বার্তা সংস্থা জানিয়েছে- কারাবাখের প্রধান শহর খানকেন্ডিতে বড় রকমের বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে।

ধারণা করা হচ্ছে- আজারবাইজান থেকে রকেট হামলা চালিয়ে এসব বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে। আর্মেনিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আজারবাইজানকে বেসামরিক লোকজন হত্যার জন্য দায়ী করেছে। নাগার্নো-কারাবাখ অঞ্চলে ভয়াবহ সংঘর্ষ চলছে বলে আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সুশান স্টেপানিয়ান জানিয়েছেন। -পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য