রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি আঞ্চলিক কার্যালয়ের সামনে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মাহুতি দিয়েছেন দেশটির একটি গণমাধ্যমের সম্পাদক। নিঝনি নভগোরদ শহরে শুক্রবার এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আত্মাহুতি দেওয়া সম্পাদকের নাম ইরিনা স্লাভিনা। কোজা প্রেস নামের সংবাদভিত্তিক ওয়েবসাইটের প্রধান সম্পাদক ছিলেন তিনি।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার এক ফেসবুক পোস্টে ইরিনা লেখেন, আমি আপনাদের আমার মৃত্যুর জন্য রাশিয়ান ফেডারেশনকে দায়ী করতে বলছি।

স্লাভিনা গত বৃহস্পতিবার বলেছিলেন, ওপেন রাশিয়া নামে গণতন্ত্রপন্থী একটি গোষ্ঠীর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট নথিপত্রের খোঁজে পুলিশ তার বাড়িতে তল্লাশি চালিয়েছে। পরে কিছু কম্পিউটার ও কাগজপত্র জব্দ করে নিয়ে যায়। নিজের বাসায় পুলিশ তল্লাশি চালানোর পরেই পোস্ট দেন তিনি।

মারাত্মক দগ্ধ অবস্থায় তার মরদেহ পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে রুশ কর্তৃপক্ষ

শুক্রবার ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, নিজনি নভগ্রোড শহরের গোর্কি স্ট্রিটের একটি বেঞ্চের ওপর দাঁড়িয়ে নিজের শরীরে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন ইরিনা স্লাভিনা। ওই সড়কে রাশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি আঞ্চলিক কার্যালয় রয়েছে। ফুটেজে দেখা গেছে, আগুন নেভাতে সাহায্য করতে দৌড়ে যাচ্ছেন একজন পুরুষ। তবে তিনি বারবার তাকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন। মাটিতে পড়ে যাওয়ার আগে নিজের কোট ব্যবহার করে আগুন নেভানোর চেষ্টা করতে দেখা যায় তাকে।

রাশিয়ার তদন্তকারী কমিটি জানিয়েছে যে সাংবাদিক ইরিনা স্লাভিনার স্বামী ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে। তবে এই আত্মাহুতির সঙ্গে ওই সাংবাদিকের ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালানোর কোনো রকমের সংযোগ নেই বলে জানিয়েছেন তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য