রংপুর নগরীতে সৃষ্ট জলাবদ্ধতার পানিতে ডুবে ৬ বছরের শিশু রিপন মিয়া ও মা রোকেয়া বেগমের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) দুপুরে নগরীর ২৩নং ওয়ার্ডের জুম্মাপাড়ায় আল হেরা গলিতে পানিতে ডুবে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী জানান, রংপুরের ইতিহাসের সবচেয়ে বৃহৎ জলাবদ্ধতায় নগরীর মিস্ত্রিপাড়া থেকে জুম্মাপাড়া যাওয়া প্রায় প্রায় চার কিলোমিটারের রাস্তাটি এখনো হাঁটু পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে। এর মাঝে প্রায় দুই কিলোমিটার সড়কের দুই পার্শ্বে নিচু এলাকা হওয়ায় অথৈ পানি বিদ্যমান। বিকল্প রাস্তা দিয়ে অনেকটা পথ ঘুরে যেতে হয়। এলাকাবাসী মাত্র চার ফিট প্রশস্ত এই চিকন রাস্তা দিয়েই চলাচল করছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মা রোকেয়া বেগম ছোট ছেলে রিপনকে সাথে নিয়ে হাঁটু পানি ডিঙিয়ে বড় ছেলে রোহান মিয়াকে তার মাদরাসায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য যাচ্ছিলেন। হঠাৎ বড় ছেলে পা পিছলে গভীর পানিতে পরে যায়। এ সময় ছোট ছেলেকে হাঁটু পানিতে রেখে বড় ছেলেকে বাঁচাতে মা পানিতে ঝাপ দিয়ে তাকে উদ্ধার করে। পরক্ষণেই ছোট ছেলে অপর পাশে অথৈ পানিতে পরে যায়। কিন্তু তারা দু’জনে আর পানি থেকে উঠে আসতে পারেনি। পরে এলাকাবাসী ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাদের মরদেহ উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যালে নিয়ে যায় এবং বড় ছেলেকে চিকিৎসার জন্য মেডিক্যালে ভর্তি করানো হয়।

রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. সেকেন্দার আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘এলাকাবাসী মা ও ছেলের মরদেহ উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। বড় ছেলে রোহান মিয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য