মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) থেকেঃ পঞ্চগড়ের বোদায় এক গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত ধর্ষককারীকে গত রবিবার বিকেলে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গত শুক্রবার সন্ধায় উপজেলার পাচপীর ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামে হাসনা বেগম (৩০) নামের এক গৃহবধু ধর্ষণের শিকার হয়।

এ ঘটনায় বোদা থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। সে ঐ গ্রামের আফজাল খানের স্ত্রী। মামলা সুত্রে জানা যায়, ধর্ষিত গৃহবধুর স্বামী আফজাল খান চৌরঙ্গী বাজারের চাল ব্যবসায়ী। গত শুক্রবার বিকেলে আফজাল খান চৌরঙ্গী বাজারে তার চালের দোকানে যান। এ সময় বাড়িতে একাই ছিল হাসনা।

এ সুযোগে একই এলাকার সয়বর আলীর ছেলে শরিফুল ইসলাম বাড়িতে ডুকে হাসনা বেগমকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ধর্ষণের শিকার ঐ মহিলা চিৎকার করলে ধর্ষণকারী শরিফুল ইসলাম পালিয়ে যায়।

স্থানীয় লোকজন বোদা থানায় সংবাদ দিলে বোদা থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে হাসনা বেগমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। গত শনিবার হাসনা বেগমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ঘটনায় বোদা থানায় হাসনা বেগম বাদী হয়ে শরিফুল ইসলামকে আসামি করে মামলা করে। এ ব্যাপারে বোদা থানার ওসি (তদন্ত) আবু সায়েম মিয়া জানান, এক গৃহবধুকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। গতকাল সোমবার তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য