সংবাদ সম্মেলনঃ বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হকের উপর হামলা এবং ৫৩ শতক জমি জোবর দখলের অপচেষ্টায় জড়িত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও কঠোর শাস্তির দাবীতে দিনাজপুর প্রেসক্লাবে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।

২৭ সেপ্টেম্বর রবিবার সকালে দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হক আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে উপরোক্ত অভিযোগ এনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বীরগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার কালিপদ রায়।

এসময় লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন. ২০০১ সালে ততকালিন সরকার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাম্মেল হকের নামে ৫৩ শতক জমি সরকারী ভাবে পত্তন দেয়। তখন থেকেই পার্শ্ববর্তী এলাকার স্থানীয় সন্ত্রাসী চক্রের হোতা জমিটির সীমানা নির্ধারন নিয়ে নানান ভাবে ভয়ভীতির মাধ্যমে মোজাম্মেল হককে হয়রানী ও জমিজোবর দখলের অপচেষ্টা করে আসছে। এনিয়ে স্থানীয়ভাবে গণ্যব্যক্তিদের উপস্থিতিতে জমির মাপামাপি ও মিমাংসার চেষ্টা করা হলেও সন্ত্রাসী উজ্জল ইসলাম গংদের জোবরদখল মনোভাবের কারনে সীমানা নির্ধারন করা সম্ভব হয়নি।

এব্যাপারে আবেদনের প্রেক্ষিতে বীরগঞ্জ সহকারী ভুমি কমিশনারের মাধ্যমে গত ১৯/০৮/২০ তারিখে উল্লেখিত জমিতে তারকাটার ঘেরা-বেড়া দেয়া হয়। কয়েকদিন পরেই ২৭/০৮/২০ ইং তারিখে সকাল বেলা সন্ত্রাসী মো: উজ্জল এবং তার বাহিনীর ৪০/৫০ জন সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রসহ একত্রে হামলা চালিয়ে ওই জমির কাটাতারের ঘেরাবেড়া ভেংগে জমিতে লাগানো ৫০ হাজার টাকার মেহগনি গাছের চারার ব্যাপক ক্ষতিসাধন করেছে।

সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে বাধা দিতে গেলে সন্ত্রাসীরা মুক্তিযোদ্ধা মোজ্জাম্মেল এবং তার স্ত্রীকে পিটিয়ে আহত করে। বীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৭দিন চিকিতসা শেষে বাড়িতে এসে আবারো মোজ্জাম্মেল হক বীরগঞ্জ সহকারী কমিশনার(ভুমি) এবং মুক্তিযোদ্ধারদের উপস্থিতিতে পুনরায় সীমানা নির্ধারন করে ইটের প্রাচীর ঘেড়া প্রদান করেন। এরপরেও সন্ত্রাসী উজ্জল আবারো ২১/০৯/২০ ইং তারিখ ভোর ৫টায় সন্ত্রাসী দ্বারা বাড়ী ঘেড়াও করে রেখে ইটের তৈরী প্রাচীল ভেংগে ফেলে এবং অকথ্য ভাষায় মুক্তিযোদ্ধাদের গালিগালাজসহ জানে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে।

ওই তারিখেই মোজাম্মেল হক এবং মুক্তিযোদ্ধারা বীরগঞ্জ থানায় গিয়ে ঘটনার বিস্তারিত এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমান জানিয়ে মামলা করেছে যার নং ১৪ তাং ২১/০৯/২০। জামিনে এসে আবারো ২৬/০৯/২৯ তারিখে হামলা করে ১০ হাজার ইট নিয়ে যায় এবং জমিতে টিনের ছাপড়া ঘর নির্মান করেছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধারা বলেন একজন মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি ও জমিতে পরপর ৩ বার হামলা ও ব্যাপক ক্ষতিসাধন করা হলেও সন্ত্রাসীর কর্মকান্ড থামানো যাচ্ছে না। আমরা মুক্তিযোদ্ধারা এই ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ এবং এই ঘটনার সাথে জড়িতদের কঠোর শাস্তি ও ন্যায় বিচার দাবী করছি।

সংবাদ সম্মেলনে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, এসএম এ খালেক মো: বশির উদ্দীন,আব্দুল আজিজ.মোজাম্মেল হক,ইলিয়াস আলী প্রমুখ।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য