দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের হিলিতে এক সপ্তাহের ব্যবধানে প্রতি কেজি চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ২ থেকে ৪ টাকা। খুচরা বাজারে এক সপ্তাহ আগে যে চাল ছিলো ৩৮ টাকা তা বর্তমানে প্রকারভেদে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা পর্যন্ত কেজি দরে। মিলারদের মিলে ধানের দাম বেশি হওয়ায় চালের দাম বেড়েছে বলে জানিয়েছেন হিলির চাল ব্যবসায়ীরা।

আজ শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকালে হিলি চালের বাজার ঘুরে দেখা যায়, অটো ২৮ চাল ৩ টাকা বেড়ে ৪৬ টাকা, নাজিরশাইল চাল ৩ টাকা বেড়ে ৪৫ টাকা, মিনিকেট চালের দাম ৩ টাকা বেড়ে ৫০ টাকা, স্বম্পা কাটারি ৩ টাকা বেড়ে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

হিলি বাজারে চাল কিনতে আসা আসাদুজ্জামান জানান, বাজারে চাল কিনতে এসে হিসাব মিলাতে পারছি না। এক সপ্তাহ আগে যে দামে চাল কিনেছিলাম আজ দেখি সেই চাল প্রতি কেজিতেই ৩ থেকে ৪ টাকা বেশি। এভাবে যদি চালের দাম বাড়তে থাকে তাহলে কিভাবে সংসারের চাহিদা মেটাবো। আমাদের জন্য খুব কষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

তারা আরও জানান, একদিকে পেঁয়াজের দাম বেশি অন্য দিকে আবার চালের দাম প্রতিনিয়ত বাড়তে আছে। প্রশাসন যদি এখনি বাজার মনিটরিঙ না করে তবে আরও দাম বাড়তে পারে। তখন আমাদের মত নি¤œ বৃত্তদের খুব সমস্যায় পরতে হয়।

হিলি বাজারের পাইকারি ব্যবসায়ী স্বপন পাল বলেন, এক সপ্তাহের ব্যবধানে পাইকারি বাজারে প্রতি কেজি চালের দাম ২ থেকে ৪ টাকা বেড়েছে। তবে বর্তমানে অটো মিলে চালের দাম বেশি। মিল মালিকরা বলছেন ধানের দাম বেশি হওয়ায় চালের দাম বেশি হয়েছে। চালের দাম বাড়ার কারনে অনেক সময় ক্রেতাদের প্রশ্নের মুখে পরতে হচ্ছে। আমাদের বেশি দামে কিনে বেশি বিক্রি করতে হচ্ছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য