গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ডেকে নিয়ে এক নারীকে দুই দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ করেছে তার কথিত প্রেমিক ও তার বন্ধুরা। এ ঘটনায় পুলিশ ৪ জনকে আটক করেছে। ঘটনাটি ঘটিছে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার পৌরসভার শিববাড়ী এলাকায়।

পুলিশ জানায়, ওই মেয়ের সাথে পৌর এলাকার চাষক পাড়া মহল্লার আনারুলের ছেলে শাহাদতের সাথে দীর্ঘ দিন ধরে মোবাইলে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। এর এক পর্যায়ে বিয়ের কথা বলে গত বুধবার ফরিদপুর জেলার চক হরিরামপুর গ্রামের গণধর্ষণের শিকার ২০ বছর বয়সী ওই নারী নিজ এলাকায় ডেকে আনে।

এরপর তাকে গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার শিববাড়ীর একটি বাড়িতে আটকে রেখে শাহাদতসহ বন্ধুরা মেলে তাকে ধর্ষণ করে। সেখানে দুইদিন ধরে নির্যাতনের শিকার হয়ে মেয়েটি কৌশলে গত শুক্রবার সন্ধ্যায় পালিয়ে থানায় এসে অভিযোগ করলে পুলিশের একাধিক টিম বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে জড়িত অভিযোগে ৪জনকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা শাহাদৎ হোসেন (২০) ও তার ৩ বন্ধু ফুলবাড়ী নাচাই-কোচাই গ্রামের আব্দুর রহমান সরকারের ছেলে জহুরুল সরকার (২৬), পৌরসভার বোয়ালিয়া (নয়াপাড়া) গ্রামের আ. হামিদের ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়া (৩৫), থানাপাড়া (কসাইপাড়া) গ্রামের মৃত ইউনুস আলীর ছেলে জাহিদ হাসান (২৭)।

একই অভিযোগে পলাতক রয়েছে চাষকপাড়া গ্রামের পচু মিয়ার ছেলে আনারুল (৩২), কুড়িপাড়া (শিববাড়ি) গ্রামের সুনিলের ছেলে নবানুসহ (৩২) অজ্ঞাত কয়েকজন।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা একেএম মেহেদী হাসান আটকের ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যহত রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য