চীনের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে নিউ ইয়র্ক নগর পুলিশ বিভাগের একজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আনা হয়েছে।

তিব্বতে জন্মগ্রহণকারী বাইমাদাজি আংওয়াংয়ের বিরুদ্ধে নিউ ইয়র্ক এলাকায় চীনা নাগরিকদের কর্মকাণ্ড নিয়ে প্রতিবেদন দেওয়া ও তিব্বতি সম্প্রদায়ের মধ্যে সম্ভাব্য গোয়েন্দা উৎসগুলো সম্পর্কে মূল্যায়ন প্রতিবেদন দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্ব পাওয়া এই কর্মকর্তাকে সোমবার গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি পুলিশ বিভাগের কমিউনিটি অ্যাফেয়ার্স ইউনিটে কাজ করতেন বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বিচারে দোষী সাব্যস্ত হলে তার সর্বোচ্চ ৫৫ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

সরকারি কৌঁসুলিদের ভাষ্য অনুযায়ী, আংওয়াং একজন বেসামরিক বিষয়ের বিশেষজ্ঞ হিসেবে ইউএস আর্মি রিজার্ভের নিযুক্ত কর্মী হিসেবেও কাজ করতেন।

চীনের কন্স্যুলেটের দুই কর্মকর্তার সঙ্গে তিনি যোগাযোগ রক্ষা করে চলতেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

নিউ ইয়র্ক শহরের তিব্বতিদের বিষয়ে তথ্য দেওয়ার পাশাপাশি আংওয়াং দাপ্তরিক বিভিন্ন অনুষ্ঠানে চীনা কর্মকর্তাদের আমন্ত্রণ করে এনে নিউ ইয়র্ক পুলিশ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে তাদের পরিচয় করিয়ে দিতেন বলেও অভিযোগ করা হয়েছে।

আদালতের নথিপত্র অনুযায়ী, যে চীনা কর্মকর্তার হয়ে কাজ করতেন সেই কর্মকর্তাকে আংওয়াং বলেছিলেন, তিনি নিউ ইয়র্ক পুলিশ বিভাগের উচ্চপদে প্রমোশন পেতে চান তাহলে তিনি চীনকে সহায়তা করতে পারবেন এবং দেশটিকে ‘গৌরবান্বিত’ করতে পারবেন।

তার বিরুদ্ধে তারবার্তা জালিয়াতি, মিথ্যা বিবৃতি দেওয়া ও একটি দাপ্তরিক প্রক্রিয়ায় বাধা দেওয়ার অভিযোগও আনা হয়েছে।

‘চীন থেকে পাঠানো অনেকগুলো তারবার্তা’ তিনি গ্রহণ করেছিলেন বলেও আদালতের নথিতে বলা হয়েছে।

নথির তথ্য অনুযায়ী, আংওয়াংয়ের বাবা চীনের সেনাবাহিনীর একজন অবসরপ্রাপ্ত সদস্য এবং তিনি দেশটির কমিউনিস্ট পার্টিরও সদস্য। তার মা সাবেক সরকারি কর্মকর্তা এবং তিনিও কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য