আফগানিস্তানজুড়ে নিরাপত্তা বাহিনীগুলোর সঙ্গে তালেবান যোদ্ধাদের কয়েকটি লড়াইয়ের ঘটনায় অন্তত ৭৪ জন নিহত হয়েছেন।

রোববার রাতভর চলা এই সংঘর্ষের ঘটনায় আরও বহু লোক আহত হয়েছেন বলে সোমবার জানিয়েছেন আফগানিস্তানের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ১২ সেপ্টেম্বর কাতারের রাজধানী দোহায় সরকারি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বিদ্রোহী গোষ্ঠী তালেবান প্রতিনিধিদের শান্তি আলোচনা শুরু হওয়ার পর দুই পক্ষের মধ্যে লড়াইয়ের সবচেয়ে রক্তাক্ত দিন ছিল এটি।

দোহায় দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনায় এক সপ্তাহেরও বেশি সময় পার হওয়ার পরও অগ্রগতি সামান্য, বিশেষ করে যুদ্ধবিরতির বিষয়ে। অনেক দেশ যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানালেও তালেবান তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

রোববার রাতে সবচেয়ে রক্তাক্ত সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যাঞ্চলীয় উরুজগান প্রদেশে। এখানে তালেবান যোদ্ধারা নিরাপত্তা বাহিনীর চেকপয়েন্টগুলোতে হামলা চালিয়ে আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর ২৪ সদস্যকে হত্যা করেছে বলে প্রদেশটির ডেপুটি গভর্নর সৈয়দ মোহাম্মদ সাদাত জানিয়েছেন।

তাখার, হেলমান্দ, কাপিসা, বলখ, মাইদান ওয়ারদাক ও কুন্দুজেও সংঘর্ষ ও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রদেশগুলোর কর্মকর্তারা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

বলখে আফগানিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা ন্যাশনাল ডিরেক্টরেট অব সিকিউরিটির তিন সদস্যকে তালেবান জিম্মি করেছে বলে প্রদেশটির গভর্নরের মুখপাত্র মনির আহমদ ফরহাদ জানিয়েছেন।

তালেবান তাদের পক্ষে হতাহতের কথা নিশ্চিত না করলেও পামির মিলিটারি কোরের মুখপাত্র আব্দুল হাদি জামাল জানিয়েছেন, রোববার রাতে কুন্দুজ, তাখার ও বাঘলান প্রদেশে সংঘর্ষে ৫৪ জন বিদ্রোহী নিহত হয়েছেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য