ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস গাজা উপত্যকার উপর থেকে অবরোধ তুলে নিতে ইহুদিবাদী ইসরাইলের জন্য দুই মাসের সময়সীমা বেধে দিয়েছে। এ সময়ের মধ্যে অবরোধ প্রত্যাহার করা না হলে সামরিকভাবে এর সুরাহা করা হবে বলে হামাস ইঙ্গিত দিয়েছে।

হামাসের রাজনৈতিক ব্যুরোর অন্যতম সদস্য খলিল আল-হাইয়া বলেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের মধ্যে গত কয়েক মাস ধরে মানবিক সহযোগিতা পর্যন্ত গাজায় পৌঁছাতে দিচ্ছে না। যদি ইসরাইল আগামী দুই মাসের মধ্যে স্বেচ্ছায় এই অবরোধের অবসান না ঘটায় তাহলে হামাস সামরিকভাবে ইসরাইলিদেরকে আশ্রয় কেন্দ্রে যেতে বাধ্য করতে সক্ষম।
ইসমাইল হানিয়া

২০০৮ সাল থেকে গাজার ওপর অবরোধ দিয়ে রেখেছে ইহুদিবাদী ইসরাইল। ফলে সেখানকার মানুষের জীবনযাত্রার মান মারাত্মকভাবে নেমে গেছে। এ অবস্থায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর ফিলিস্তিন শান্তি প্রক্রিয়া বিষয়ক জাতিসংঘের বিশেষ সমন্বয়কারী নিকলাই ম্লাদেনভ গাজা সফর করেন এবং হামাসের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন।

সেসময় হামাসের শীর্ষ নেতা ইসমাইল হানিয়া বলেছেন, যতক্ষণ পর্যন্ত গাজার ওপর থেকে অবরোধ সম্পূর্ণভাবে উঠে না যাওয়া পর্যন্ত হামাস এবং গাজার জনগণ ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে লড়াই করতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। হামাস এরইমধ্যে অস্ত্র ত্যাগের বিনিময়ে দেড় হাজার কোটি ডলারের মার্কিন সহযোগিতার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে। – পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য