ইতালিতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে শনিবার একদিনেই ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া একইদিনে দেশটিতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছে আরো ১ হাজার ৬৩৮ জন। শনিবার হঠাৎ করে মৃত্যুর হার বেড়ে যাওয়ায় আবারো নতুন করে চিন্তিত দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

ইতোমধ্যে দেশটির বিশেষজ্ঞরা চলমান জরুরী অবস্থার সময়সীমা ১৫ অক্টোবর থেকে বাড়িয়ে চলতি বছরের শেষ দিন অর্থাৎ ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত বর্ধিত করার উপদেশ দিয়েছেন। তবে নতুন করে আবারো লকডাউনে না যাবার কথাও বলেছেন এসব বিশেষজ্ঞরা।

তারা বলছেন, ‘ইউরোপের অর্থনৈতিক শক্তিশালী দেশ ইতালির অর্থনীতিকে পুনরায় চাঙ্গা করতে নতুন করে লকডাউনে যাবার কোন সুযোগ নেই ইতালির। নতুন করে পুরো ইতালিকে লকডাউন করা হলে অর্থনৈতিকভাবে চরম মূল্য দিতে হবে ইতালিকে। তাই নতুন করে লকডাউনে না যেয়ে ভিন্নভাবে করোনা মোকাবিলা করে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই এখন প্রধান চ্যালেঞ্জ দেশটির সরকারের’।

এদিকে রবিবার থেকে দেশটির জনপ্রিয় ফুটবল প্রিমিয়ার লীগ ‘সেরিয়া আ’র জন্য খুলে দেয়া হচ্ছে সকল স্টেডিয়াম। তবে ১৬ টি দেশের সাথে চলমান ফ্লাইট নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে এখনো স্পষ্ট করে কিছু বলেনি দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

শনিবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সারাদেশে নতুন শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ৬৩৮ জন নতুন করোনা রোগী। এরমধ্যে সবচেয়ে বেশি শনাক্ত হয়েছে দেশটির উত্তরাঞ্চল লোম্বারদিয়ায় ২৪৩ জন। এছাড়া একইদিনে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে আরো ২৪ জনের। এ নিয়ে দেশটিতে সর্বমোট মৃতের সংখ্যা ৩৫ হাজার ৬৯২ জনের।

তবে গত ২৪ ঘণ্টায় এ ভাইরাস থেকে মুক্তি পেয়ে বাসায় ফিরেছেন ৯০৯ জন। এ নিয়ে দেশটিতে সর্বমোট সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ১৭ হাজার ৭১৬ জন। আর এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে দেশটিতে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৪৩ হাজার ১৬১ জন। এদের মধ্যে ২১৫ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য