দিনাজপুর সংবাদাতাঃ “বিশ্ব যখন ৪০ এর উর্ধ্বে আমরা কেন বঞ্চিত মা, ৩৫ একটি যৌক্তিক দাবী ৩৫ এখন সময়ের দাবী“ শ্লোগান নিয়ে এক দফা বাস্তবায়নের দাবীতে দিনাজপুরে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করেছে বাংলাদেশ সাধারন ছাত্র পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার কর্মী ও সমর্থকেরা।

চাকুরীতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার এক দফা দাবীতে ১৭ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সন্মুখ সড়কে বাংলাদেশ সাধারন ছাত্র পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার ব্যান্যারে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন পালন করেছে সুবিধা বঞ্চিতরা।

মানববন্ধনচলাকালে সংগঠনের জেলা সমন্বয়ক দিলীপ কুমার পলোর‘র সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তারা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্য বলেন,মাগো শিক্ষা জীবন শেষ করতেই আমাদের বয়সসীমা ২৭/২৮ বছর পার হয়ে যায় তাহলে কিভাবে আমরা সরকারী চাকুরীতে প্রবেশ করতে পারবো। আপনি আমাদের মা জননী বেশী কিছু চাইনা মা শুধুমাত্র চাকুরীতে প্রবেশের বয়সসীমাটা বাড়িয়ে ৩৫ করে দিলেই হবে।

তারা বলেন,প্রতিবেশী দেশ ভারতসহ বিশ্বের বহু দেশেই সরকারী চাকুরীতে বয়সসীমা ৩৫-৪০ রয়েছে কিন্তু আমাদের দেশেই এখানো এটা করা সম্ভব হচ্ছেনা।

২০১৪ সাল থেকে চাকুরীতে বয়সসীমা ৩৫‘র জন্যে দীর্ঘদিন ধরে আমরা আপনার সন্তানেরা দেশের আনাচে-কানাচে আন্দোলন সংগ্রাম করে যাচ্ছি শুধু বয়স সীমাটা বাড়ানোর জন্যে কিন্তু হচ্ছেনা। বক্তারা বলেন,আমাদের দেশের শিক্ষাঙ্গনের সেসনজোটসহ নানান সমস্যার কারনে শিক্ষার্থীদের লেখা পড়া শেষ করতেই চলে যায় ২৮-২৯ বছর।

এরপরেও দেশের বর্তমান ব্যবস্থায় নানান জটিলতার কারনে একজন শিক্ষার্থীর শিক্ষালয়ে পড়াশোনাকালিন সময়েই তার চাকুরীর বয়স শেষ হয়ে যায়, পরে তাকে পাবলিক চাকুরী নইলে বেকারত্বের অভিশাপ ঘাড়ে নিয়ে ধুকে ধুকে নি:শেষ হতে হয়। তাই মা জননী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে আমাদের দাবী একটাই আপনি আমাদের দাবীটা মেনে নিয়ে বেঁেচ থাকার আলোটা জ্বালিয়ে দিন মা।

প্রধান অতিথি হিসেবে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ৩৫‘র উদ্দ্যোগক্তা ও প্রধান সমন্বয়কারী ইমতিয়াজ হোসেন ও বাংলাদেশ সাধারন ছাত্র পরিষদের সিনিয়র সহ সভাপতি মো: আল কাওসার। এছাড়াও অন্যান্যের মাঝে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সাধারন ছাত্র পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদ গোলাপ সারোয়ার হোসেন, ঠাকুরগাও জেলা সমন্বয়কারী মো: আব্দুস সবুর ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো: জুয়েল রানা প্রমুখ।

একই দাবীতে সমাবেশে তারা ঘোষনা করেন ১৮ সেপ্টেম্বর শুক্রবার সকাল ১০টায় লালমনিরহাট জেলার মিশনমোড় গোলস্তরে তারা ধারাবাহিক কর্মসুচীর অংশ হিসেবে মানববন্ধন কর্মসুচী পালন করবে, এই কর্মসুচী সফল করতে নেতাকর্মী ও সর্মথক সকলকে আহবান জানানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য