ভারতীয় ব্যবসায়ীরা পুনরায় রপ্তানির আশ্বাস দিলেও বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৩টা পর্যন্ত সীমান্তে আটকে থাকা পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাকগুলো দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেনি। এরফলে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা।

গত সোমবার ভারত সরকার তাদের অভ্যন্তরীণ বাজারে সংকটের কারণে মূল্যবৃদ্ধির অজুহাতে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। এ কারণে ভারত অংশে ২৫০-৩০০ পেঁয়াজ বোঝাই ভারতীয় ট্রাক দেশে অপেক্ষায় আটকা পড়ে।

এদিকে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ থাকার কারণে গতকাল মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বন্দরের বাজারগুলোতে দামে বড় ধরণের প্রভাব পড়ে। এতে করে ৪০ টাকার পেঁয়াজ একলাফে ৮০-১০০ টাকায় বেচাকেনা হলেও বুধবার থেকে পুনরায় পেঁয়াজ আমদানি হতে পারে এমন খবরে দাম কমে ৬০-৭০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আরও পড়ুন: বরিশালগামী লঞ্চে দু’সন্তানের জননী হত্যাকারী গ্রেফতার

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ ভারতের ব্যবসায়ীদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, গত রোববার ২০০ মেট্রিকটন পেঁয়াজ বাংলাদেশে রপ্তানির জন্য টেন্ডার করা হয়েছিল, সেই পেঁয়াজ ভারত সরকার বাংলাদেশে রপ্তানির জন্য অনুমতি দিতে পারে। ধারণা করা হচ্ছে আজকের মধ্যে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি শুরু হবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য