ইরাকে আরো দুটি মার্কিন সামরিক বহরে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। রাস্তার পাশে পেতে রাখা বোমার মাধ্যমে এসব বহরে হামলা চালানো হয়। ইরাকে যখন মার্কিন সামরিক দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে মনোভাব তুঙ্গে তখন ধারাবাহিকভাবে প্রায় প্রতি সপ্তাহে এ ধরনের হামলার ঘটনা ঘটছে।

সর্বশেষ যে দুটি হামলা হয়েছে তার প্রথমটি ইরাকের দক্ষিণাঞ্চলীয় কাদিসিয়া প্রদেশ ঘটেছে। গতকাল (মঙ্গলবার) শেষ বেলায় ওই হামলা হয়।

ইরাকের আরবি ভাষার টেলিভিশন চ্যানেল আস-সুমারিয়া জানিয়েছে, আদ-দিওয়ানিয়া মহাসড়কে পেতে রাখা বোমা সামরিক বহরে আঘাত হানে। এতে একজন নিহত এবং ৩০ জন আহত হয়।

দ্বিতীয় হামলার ঘটনা ঘটে ইরাকের রাজধানী বাগদাদের উত্তরাঞ্চলীয় আন-নাবায়ি এলাকায়। ত্রাণ ও রসদবাহী এ বহরে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় দুই সেনাসদস্য আহত হয়েছে।

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে ইরানের আল-কুদস ফোর্সের তৎকালীন কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে মার্কিন সেনারা হত্যা করার পর ইরাকের জনগণের মধ্যে মার্কিন-বিরোধী মনোভাব তুঙ্গে উঠেছে। এর পরপরই ইরাকের জাতীয় সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে একটি প্রস্তাব পাস হয় যাতে ইরাক থেকে সমস্ত মার্কিন সেনা বহিষ্কার করার জন্য বাগদাদ সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। এরপর থেকে হামলার ঘটনা ঘটে চলেছে। -পার্সটুডে

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য