কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরীতে দুধকুমর নদীর ভাঙ্গন রোধ, নদীর সঠিক খনন, বাঁধ সংরক্ষণ ও নদী ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসনের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক ফাইন্ডেশনের রায়গঞ্জ ইউনিয়ন শাখা এবং রেল নৌ, যোগাযোগ ও পরিবেশ উন্নয়ন গণকমিটির যৌথ আয়োজনে রোববার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নের হাজীরমোড় (স্লুইসগেট সংলগ্ন) এলাকায় দুধকুমর নদী তীরবর্তী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানবন্ধনে বিভিন্ন সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবক, শিক্ষক, ব্যবসায়ী, কৃষকসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার সহস্রাধিক মানুষ অংশ নেন।

বাংলাদেশ স্বেচ্ছাসেবক ফাউন্ডেশনের রায়গঞ্জ ইউনিয়ন শাখার প্রধান স্বেচ্ছাসেবক মোজাম্মেল হক দুদুর সভাপতিত্বে এ সময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-প্রধান স্বেচ্ছাসেবক জাহিদুল ইসলাম খাঁন জাহিদ, কুড়িগ্রাম জেলা শাখার প্রধান স্বেচ্ছাসেবক মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, উপজেলা শাখার প্রধান স্বেচ্ছাসেবক মোজাফ্ফর হোসেন, পৌর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মতি, রেল নৌ যোগাযোগ ও পরিবেশ উন্নয়ন গণকমিটির আহ্বায়ক জাকির হোসেন, সাবেক সভাপতি-তাজুল ইসলাম, সাবেক সহ-সভাপতি আবদুল কাদের, স্বেচ্ছাসেবক রেজাউল করিম মানিক প্রধান কলি আক্তার, দুলালী খাতুন প্রসুখ।

বক্তারা বলেন, প্রতিবছরের বন্যায় দুধকুমর তীরবর্তী এলাকার শতশত বসতবাড়ী নদীগর্ভে বিলিন হয়ে যায়। এখানে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ হলেও তা অপ্রতুল। তবে এসব অঞ্চলের মানুষ ত্রাণ চায় না। চায় স্থায়ী পুনর্বাসনের ব্যবস্থা। তারা আরও বলেন দুধকুমর নদী ভাঙ্গন রোধে কিছুদিন আগেই খনন করা হয়েছে। কিন্তু সেখানে যে পরিমাণ দায়িত্বে অবহেলা করা হয়েছে তা বলা বহুল্য। যে কারণে লাখ লাখ টাকার সম্পদ হারিয়ে এখন নিঃস্ব চরধাউরারকুটি গ্রামের হাজারও মানুষ। এছাড়াও মাঝিটারী থেকে চর ধাউরারকুটি পর্যন্ত বিলুপ্তপ্রায় বাঁধটি সংরক্ষণের দাবি জানান তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য