দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ঘোড়াঘাট উপজেলা যুবলীগের নেতা আসাদুল, জাহাঙ্গীরের নির্দেশে দিনাজপুর ঘোড়াঘাট ইউএনও ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার সব কর্মকাণ্ড পরিচালিত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন দিনাজপুর-৬ (হাকিমপুর, বিরামপুর, নবাবগঞ্জ ও ঘোড়াঘাট) আসনের এমপি শিবলী সাদিক। ‘আসাদুল, জাহাঙ্গীর ও আরও একজন গ্রেফতার হয়েছে। তিনি বলেন, ‘এরা মাদকাসক্ত। একাধিক মামলার আসামি। জাহাঙ্গীর, আসাদুল, নান্নু এরা একই গ্রুপে চলাচল করে। তাদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে এলাকায় সন্ত্রাস ও মাদকের বিস্তারের একাধিক মামলা রয়েছে।

দিনাজপুর-৬ আসনের এমপি শিবলী সাদিক বলেন ‘আমি একাধিকবার তাদের বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য চিঠি দিয়ে কোনও জবাব পাইনি। এখন ইউএন’ও ওপর হামলার ঘটনায় এই যে আওয়ামী লীগ পরিবারের ওপর কাদা লেগে গেলো, এর জবাব কে দেবে? ’

এ বিষয়ে  দিনাজপুর জেলা যুবলীগের সভাপতি রাশেদ পারভেজ বলেন, ‘গত ৭ জুন স্থানীয় সংসদ সদস্য শিবলী সাদিকের ডিওসহ অভিযুক্ত যুবলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত সে চিঠির উত্তর পাওয়া যায়নি। এই আহ্বায়ক কমিটি ২০১৭ সালে গঠিত হয়েছিল কিন্তু তিন বছর কমিটি একইভাবে চলছে। এটা কোনোভাবেই হতে পারে না। আমরা দায়িত্ব নেওয়ার আগেই এই কমিটি হয়েছিল।’

ইউএনও ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনায় শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) ভোরে আসাদুল হক ও জাহাঙ্গীর হোসেনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। হিলি ও ঘোড়াঘাট থেকে গ্রেফতারের পর তাদের দুই জনকেই রংপুর র‌্যাব কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। পরে আরো একজনকে আটক করা হয়েছে বলে শোনা গেলেও তার নাম এখনও আইনশৃঙ্খলা বাহিনি পক্ষ থেকে প্রকাশ করা হয়নি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য