দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা জোরপূর্বক আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠেছে সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্যর বিরুদ্ধে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) কাছে লিখিত অভিযোগের পর সেই টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হয় ওই সংরক্ষিত মহিলা সদস্য।

গতকাল উপজেলা নির্বাহী কর্মকতার অফিসে তিন ভূক্তভোগীর হাতে ওই টাকা ফেরত দেন ১নং জয়পুর ইউনিয়নের মহিলা সদস্য মোছাঃ দোলোয়ারা বেগম।
লিখিত অভিযোগে জানাযায়, উপজেলার ১নং জয়পুর ইউনিয়নের মোছা.রাশেদা বেগম,মো. ইব্রাহীম ও সাজু টুডু নামের তিন ব্যক্তি গত ২৭ আগষ্ট প্রতিবন্ধীর ভাতা বাবদ জয়পুর ইউনিয়ন হতে টাকা প্রদান করেন। ওই ইউনিয়নের ৭.৮ ও ৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ভাতার কার্ড বাতিলের হুমকি দিয়ে তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে তিন হাজার টাকা করে আদায় করেন।

এ ঘটনার পর গত ৩১ আগষ্ট উপজেলা নির্বহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মোছা. নাজমুন নাহার বরাবর ওই তিন ভূক্তভোগী লিখিত অভিযোগ করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মোছা. নাজমুন নাহার বলেন,‘ জয়পুর ইউনিয়নের তিন ভূক্তভোগীর কাছ থেকে প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা জোর করে আৎসাত করেন ওই ইউনিয়নের ৭.৮ ও ৯ নং মহিলা ইউপি সদস্য মোছা.রাশেদা বেগম। এমন অভিযোগে সংশ্লিষ্ঠ সদস্যকে ডেকে ভূক্তভোগীদের কাছ থেকে আত্মসাৎকৃত টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য