গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলায় ৪ মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে শনিবার রাতে থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিহত গৃহবধূর পিতা বুদ্ধিশ্বর পাল বাদী হয়ে জামাইসহ ৫ জনকে আসামি করে এই মামলা দায়ের করে। ঘটনার পর থেকে স্বামীসহ তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রবিবার সকালে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহত ছবি রানী পাল (২৮) সাদুল্লাপুর উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের রসুলপুর বৈরাগীপাড়া বৈদ্যনাথ পালের স্ত্রী ও সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার নবীপুর গ্রামের ডাঃ বুদ্ধিশ্বর পালের মেয়ে।

পুলিশ ও মামলার সূত্রে জানায়, প্রায় ১০ বছর ছবি রানী পালের সাথে রসুলপুর বৈরাগী পাড়ার রামপদ পালের ছেলে বৈদ্যনাথ পালের বিয়ে হয়। তারপর থেকে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্বামী ও পরিবারের লোকজন তাকে মানসিক এবং শারীরিক নির্যাতন করে আসছিল। ঘটনার দিন শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে ঝগড়ার সূত্র ধরে স্বামী, শ্বশুর-শাশুড়ি ও দেবর-ননদ মিলে ছবি রাণীকে পিটিয়ে হত্যা করে। পরে তাকে ঘরের ধর্নার সাথে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা বলে প্রচার চালায়।

এলাকাবাসী জানান, সারা রাত সাউন্ড বক্সে উচ্চস্বরে গান বাজিয়ে ছবি রানী পালকে স্বামী ও স্বামীর পরিবারের লোকজন মারপিট করে হত্যা করে।

সাদুল্লাপুর থানার ওসি মাসুদ রানা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ শনিবার বিকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রবিবার সকালে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। ঘাতক আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত আছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য