দিনাজপুর সংবাদাতাঃ ২৭ আগস্ট বৃহষ্পতিবার বিরলের ৮ নং ধর্মপুর ইউপি’র চেয়ারম্যান সাবুল চন্দ্র সরকার আদালতে হাজিরা দিতে গিয়ে আটক হয়ে এখন জেলহাজতে। এক আদিবাসী নেতাকে আটক করে ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর গ্রহণ ও তাঁর স্ত্রীর নিকট হতে ফাঁকা চেকের পাতা গ্রহণসহ বিভিন্ন অভিযোগে দায়েরকৃত একটি মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে তিনি আটক হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষ।

মামলার বাদী আদীবাসী নেতা স্বপন এক্কা জানান, ৩ দিন যাবৎ তাঁকে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও তৎকালীন ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবুল চন্দ্র সরকার আটক করে ফাঁকা স্ট্যাম্পে জোড়পূর্বক স্বাক্ষর গ্রহণ ও তাঁর স্ত্রীর নিকট মুক্তিপণের শর্তে ফাঁকা চেকের পাতা গ্রহণের অভিযোগে ২৫০-সি/২০১৯ নং মামলা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-৪ দিনাজপুরে দায়ের করেন। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও তৎকালীন ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবুল চন্দ্র সরকারসহ ৮ জন আসামীর বিরুদ্ধে দীর্ঘ তদন্ত সাপেক্ষে পিবিআই আদালতে অভিযোগপত্র দায়ের করেন।

গত ২৪ আগস্ট/২০২০ মামলার ধার্য্য দিনে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও তৎকালীন ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবুল চন্দ্র সরকার হাজির না হওয়ায় ওয়ারেন্ট জারী হলে বৃহষ্পতিবার সাবুল চন্দ্র আদালতে জামিন চাইতে গেলে বিজ্ঞ বিচারক বিশ্বনাথ মন্ডল তাঁর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। মামলায় বাদীপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এ্যাড. আবদুল হাই ও আসামি পক্ষের এ্যাড. হামিদুল হক।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য