দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে ভাইয়ের ওপর অভিমান করে বোন ইতি আক্তার (১৫) গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে দাবী করা হচ্ছে।

ঘটনাটি ঘটেছে, বুধবার সকাল ১১ টায় ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের রাজারামপুর ফকিরপাড়া গ্রামে। ইতি আক্তার ওই গ্রামের দিনমজুর আবদুল মজিদের মেয়ে এবং ফুলবাড়ী কলেজিয়েট উচ্চবিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী ছিলো।

ইতি আক্তারের মামা মো. শহীদ জানান, প্রতিবেশিদের সাথে ইতি আক্তারের পরিবারের কলহ চলছিল। এই কলহের জেরে পরিবারের অন্যান্যের সাথে ইতি আক্তারও বাড়ীর বাহিরে যায়। এতে সেও প্রতিবেশিদের সাথে কলহে জড়িয়ে পড়ে। এতে তার বড়ভাই তাকে বাড়ীর ভেরতে যেতে বলে। কিন্তু তাতে সে কর্ণপাত না করায় তার বড়ভাই তাকে চড়থাপ্পর দিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দেয়। সকলের সামনে তার বড়ভাই চড়থাপ্পর মারার অভিমানে সে সকলের অলক্ষে নিজের শয়ন কক্ষের বর্গার সাথে ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। পরে বাড়ীর লোকজন তাকে দরজা খোলার কথা বলায় সে কোন সাড়াশব্দ না করায় দরজা ভেঙ্গে তাকে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফুলবাড়ী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আরিফ জানান, বিষয়টি জানার পর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে ইতি আক্তারের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফুলবাড়ী থানার কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি) মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, ইতি আক্তারের মৃত্যুর বিষয়ে থানায় একটি ইউডি মামলা রুজু করা হয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পাওয়া গেলে ইতি আক্তারের মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য