লেবাননের শিয়া রাজনৈতিক গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর কয়েকটি সীমান্ত চৌকিতে হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল।

সীমান্তে লেবানন থেকে তাদের সেনাদের দিকে গুলি ছোড়ার পর বুধবার প্রথম প্রহরে কয়েকটি ইসরায়েলি হেলিকপ্টার ও বিমান হামলাগুলো চালায় বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী।

লেবাননের ভূখণ্ড থেকে ওই গুলিবর্ষণের ঘটনায় কোনো ইসরায়েলি সেনা আঘাত পায়নি বলে জানিয়েছে তারা। এই গুলিবর্ষণের প্রতিক্রিয়ায় ইসরায়েলি সেনারা ইলুমিনেশন ফ্লেয়ার, স্মোক শেল ও পাল্টা গুলিবর্ষণ করে বলে জানিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী।

“গুলিবর্ষণের জবাবে রাতে ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর (আইডিএফ) অ্যাটাক হেলিকপ্টারগুলো ও বিমান সীমান্ত এলাকায় সন্ত্রাসী গোষ্ঠী হিজবুল্লাহর পর্যবেক্ষণ পোস্টগুলোতে আঘাত হেনেছে,” বিবৃতিতে বলেছে ইসরায়েলি বাহিনী।

এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে হিজবুল্লাহর পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য আসেনি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

গত মাসে ইসরায়েল অভিযোগ করে বলেছিল, লেবানন সীমান্ত দিয়ে ইসরায়েলে অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালিয়েছিল হিজবুল্লাহ; তখন তা অস্বীকার করেছিল লেবাননের ইরান সমর্থিত গোষ্ঠীটি। তারপর থেকে ইসরায়েল-লেবানন সীমান্তজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে বলে খবর রয়টার্সের।

গুলি ও পাল্টা হামলার এসব ঘটনা চলাকালে রাতভর নিজেদের সীমান্ত এলাকায় কারফিউ জারি করে রেখেছিল ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী, সকালে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য