আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে জনপ্রিয় অভিনেত্রী এবং প্রথম নারী চলচ্চিত্র পরিচালকদের অন্যতম সাবা সাহরকে গুলি করেছে বন্দুকধারীরা। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

৪৪ বছরের সাবার আঘাত কতটা গুরুতর বা তার প্রাণহানির আশঙ্ক আছে কিনা তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে বিবিসি।

সাবা মঙ্গলবার গাড়িতে করে কাজে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ করেই তিন বন্দুকধারী তার গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এখন পর্যন্ত কেউ এ হামলার দায় স্বীকার করেনি।

আফগানিস্তানের সবচেয়ে জনপ্রিয় অভিনেত্রীদের একজন সাবা। তিনি একাধারে পরিচালক এবং নারী অধিকার নিয়ে কাজ করেন।

সাবার স্বামী ইমাল জাকি বিবিসি’কে বলেন, পশ্চিম কাবুলে তাদের বাড়ির কাছেই গুলির এ ঘটনা ঘটে। গাড়িতে সাবা ছাড়াও এক শিশু ও দু্ই দেহরক্ষী ছিলেন। গুলিতে দেহরক্ষীরা আহত হয়েছেন। তবে শিশুটি এবং গাড়িচালক অক্ষত আছেন।

‘‘আমার স্ত্রী বাড়ি থেকে বের হওয়ার পাঁচ মিনিটের মাথায় আমি গুলির শব্দ পাই। দৌড়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আমি তাদের সবাইকে আহত ‍অবস্থায় দেখতে পাই। আমি সাবাকে ডাকলে সে চোখ খুলে আমাকে পেটে গুলি লাগার কথা জানায়।

‘‘প্রাথমিক চিকিৎসার পর ‍তাকে আমরা প্রথমে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এবং পরে সেখান থেকে পুলিশ হাসাপাতালে নিয়ে গেছি। পুলিশ হাসপাতালে তার সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে।”

সাবা একজন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা এবং এখনও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে চাকরি করেন। তার সিনেমা এবং টেলিভিশন অনুষ্ঠানগুলোতে বিচারব্যবস্থা এবং দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরা হয়।

এ ঘটনায় ‘গভীর উদ্বেগ’ প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য