দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর শহরে বালু বোঝাই ট্রাক্টরের ধাক্কায় পড়ে গিয়ে মোটরসাইকেল আরোহী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মো. সাইদুর রহমান (৩৫) এর মৃত্যু হয়েছে। এঘটনায় মোটরসাইকেল চালক অপর সহকারি শিক্ষক আব্দুল লতিফ (৪২) গুরুতর আহত হয়েছে। ঘাতক ট্রাক্টরটি আটক করে কোতয়ালী থানায় নিয়ে গেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার আনুমানিক দুপুর ১২টার দিকে দিনাজপুর সদর উপজেলার পরিষদের সামনের মহাসড়কে দুর্ঘটনাটি ঘটে। সাইদুর রহমান সদর উপজেলার মুরারীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক ও শহরের স্টাফ কোয়ার্টার এলাকার মৃত মোখলেছুর রহমানের ছেলে। আর আহত আব্দুল লতিফ একই উপজেলার গৌরীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক ও জেলা সরকারি প্রাথমিক সহকারি শিক্ষক সমিতির সভাপতি। তিনি উপশহরের বীরমুক্তিযোদ্ধা কফিল উদ্দিনের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও সহকারি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফুর রহমান আরিফ জানান, আজ বৃহস্পতিবার দুপুর আনুমানিক ১২টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে উপজেলা পরিষদের সামনের মহাসড়কে। নিহত সাইদুর ও আহত আব্দুল লতিফ মোটরসাইকেল যোগে উপজেলা পরিষদের প্রবেশ মুখে যাওয়ার পথে মহাসড়কের দশমাইল প্রান্ত হতে আসার বালু বোঝাই একটি ট্রাক্টর ধাক্কা দিলে সড়কে ছিটকে পড়ে। গুরুতর আহতাবস্থায় তাদের অটোবাইকযোগে এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সাইদুর রহমানকে মৃত ঘোষনা করেন। আর আব্দুল লতিফ গুরুতর আহতাবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে তিনি জানান।

দিনাজপুর কোতয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) মো. বজলুর রশীদ সড়ক দুর্ঘটনায় সহকারি শিক্ষকের নিহতের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এঘটনায় ঘাতক ট্রাক্টরটিসহ ট্রাক্টর ড্রাইভার জহুরুল ইসলাম(২৫) ও হেলপার সিফাত চৌধুরী (২৬) কে আটক করেথানায় আনা হয়েছে। দুজনের বাড়ি সদর উপজেলার ১ নং চেহেলগাজী ইউনিয়নের উত্তর বংশিপুরে।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন বলেন, এ ঘটনায় ট্রাক্টরচালক ও তার সহযোগী হেল্পার কে আটক করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে ট্রাক্টরটি। আর নিহত ব্যক্তির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য