মোঃ জাকির হোসেন , সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধিঃ নীলফামারীর সৈয়দপুরে থানা পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে এক মাদকাসক্ত ও নেশা জাতীয় ব্যাথানাশক ট্যাবলেট টাপেন্টাডল বিক্রির দায়ে এক ফার্মেসী ব্যাবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে গ্রেফতারকৃতদের ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা ও কারাদণ্ড প্রদান করা হয়েছে। ২০ আগস্ট বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল ও শহীদ তুলশীরাম সড়কে এ ঘটনা ঘটে৷

থানা সূত্রে জানা যায়, সৈয়দপুর শহরে মাদক বিরোধী নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে এসআই সাহিদুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্সসহ বাস টামির্নাল এলাকা হতে ২ টি নেশা জাতীয় টাফেনডল ট্যাবলেটসহ মোঃ নজরুল ইসলাম (২৩) নামে এক মাদকাসক্ত যুবক কে গ্রেফতার করে। সে শহরের বাস টার্মিনাল সংলগ্ন নিয়ামতপুর মহল্লার মোঃ সামসুল ইসলামের ছেলে।

পরে আটকের বিষয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রমিজ আলম কে জানানো হয়। ম্যাজিষ্ট্রেট ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে গ্রেফতার নজরুল কে জিজ্ঞাসাবাদ করে।

নজরুলের দেয়া তথ্য মতে সৈয়দপুর থানা পুলিশ ও ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) শহরের দিনাজপুর রোডস্থ ফ্রেন্ডস মেডিকেল ষ্টোর হতে ২১ পিস টাপেন্টাডল ট্যাবলেট সহ ঔষধ দোকানের মালিক মোঃ মাহামুদুল হাসান (২৮) কে গ্রেফতার করে। সে সৈয়দপুরের পার্শ্ববর্তী দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার সোনাপুকুর গ্রামের মৃত রাইসুল ইসলামের ছেলে।

ভ্রাম্যমান আদালত নজরুলকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও ৫শ’ টাকা জরিমানা এবং ঔষধ দোকানের মালিক মোঃ মাহমুদুল হাসানকে ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও নগদ ৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন। আসামীদের নীলফামারী জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

সৈয়দপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল হাসনাত খান জানান, সৈয়দপুরে পুলিশ কর্তৃক মাদক বিরোধী অভিযান অব্যাহত থাকবে। এজন্য তিনি সৈয়দপুরবাসীর সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য