সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে পূর্ণাঙ্গ কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার জন্য আনুষ্ঠানিক চুক্তি করার পরও আবুধাবির কাছে মার্কিন এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান বিক্রি না করতে আমেরিকার ওপর চাপ সৃষ্টি করেছে তেল আবিব।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখা ইসরাইলের দু জন কর্মকর্তা ইংরেজি ভাষার ডেইলি হারেৎজকে জানিয়েছেন, আমেরিকা যাতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান বিক্রি না করে সেজন্য ওয়াশিংটনের ওপর চাপ সৃষ্টি করা হয়েছে। ইসরাইলের অনেক কর্মকর্তা আশঙ্কা করছেন, নেতানিয়াহু এবং তার বিশ্বস্ত লোকজন সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে গোপন চুক্তি করে থাকতে পারেন।

এসব কর্মকর্তা আশঙ্কা করছেন, নেতানিয়াহু হয়তো সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে এফ-৩৫ বিক্রির বিরোধিতা থেকে সরে আসতে পারেন। এর আগে ইসরাইল আরব দেশগুলোর কাছে স্পর্শকাতর প্রযুক্তি বিশেষ করে এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান বিক্রির ব্যাপারে কঠোর বিরোধিতা করে এসেছে।

ডেইলি হারেৎজের রিপোর্ট অনুযায়ী, নেতানিয়াহু ও তার বিশ্বস্ত সহচর মোসাদের প্রধান ইয়োসি কোহেন, আমেরিকায় নিযুক্ত ইসরাইলি রাষ্ট্রদূত রন ডারমার এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মীর বেইন শাব্বাত সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের আলোচনায় নেতৃত্ব দিয়েছেন এবং ইসরাইলের শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদেরকে না জানিয়ে হয়তো আরব আমিরাতের সঙ্গে এফ-৩৫ জঙ্গিবিমান ইস্যুতে গোপন চুক্তি করেছেন। ইসরাইলের এসব সামরিক কর্মকর্তাকে আমিরাতের সঙ্গে গোপন আলোচনা থেকে এখন পর্যন্ত দূরে রাখা হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য