জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে বরফ গলনের যে মডেল আশঙ্কা করা হয়েছিল আর্কটিক সাগরের বরফ তার চেয়েও অনেক দ্রুত গলছে। মঙ্গলবার ইউনিভার্সিটি অব কোপেনহেগেন এ তথ্য জানায়।

এখন পর্যন্ত জলবায়ু পরিবর্তন মডেলগুলো আর্কটিক তাপমাত্রার একটি ধীর এবং অবিচলিত বৃদ্ধির পূর্বাভাস দিয়েছে,তবে নতুন গবেষণায় দেখা গেছে উষ্ণায়ন আরও দ্রুত গতিতে ঘটছে। সমীক্ষায় যুক্ত অন্যতম গবেষক এবং কোপেনহেগেন ইউনিভার্সিটির প্রফেসর জেনস হেসেলবেজার্গ ক্রিস্টেনসেন এক বিবৃতিতে বলেন, আমরা স্পস্টভাবে বুঝতে পেরেছি সমুদ্রের নিকটতম বায়ুমণ্ডলে তাপমাত্রা বাড়ছে, যে কারণে সমুদ্রের বরফ দ্রুত গলছে।

গবেষকদের এই রিপোর্ট জুলাইয়ের শেষে নেচার ম্যাগাজিনে প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলা হয় ,আর্কটিক মহাসাগরে তাপমাত্রা অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পেয়েছে , যা আগের বরফ যুগে দেখা গেছে।

আইস কোর বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে গ্রিনল্যান্ডের বরফস্তরে ৪০ থেকে ১০০ বছরে কয়েক দফায় ১০ থেকে ১২ ডিগ্রি তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেয়েছে।

হেসেলবেজার্গ ক্রিস্টেনসেন বলেছেন, গ্রীষ্মের মাসগুলোতে তাপমাত্রার দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে, এতে জলবায়ু মডেলের চেয়ে দ্রুত সমুদ্রের বরফ অদৃশ্য হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

সম্প্রতি বৃটেনের ইউনিভার্সিটি অব লিনকন তাদের গবেষণায় জানিয়েছে,শুধুমাত্র গ্রিনল্যান্ডের বরফ গলনের কারণেই ২১০০ সাল নাগাদ বিশ্বের সমুদ্রস্তরের উচ্চতা ১০ থেকে ১২ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পাবে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য