ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে একটি মসজিদে আগুন দেওয়ার পর ইসরায়েলের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে হামাস।

সংগঠনের মুখপাত্র হাযিম কাসিম বলেছেন, ইহুদিবাদীদের এই হিংস্র পদক্ষেপ প্রমাণ করে অন্য ধর্মের প্রতি তাদের কোনো শ্রদ্ধাবোধ নেই। তারা মানবীয় মূল্যবোধের পরোয়া করে না। আর এসবই তাদের পতনের ইঙ্গিত দিচ্ছে।

তিনি পশ্চিম তীরের অধিবাসীদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে এ ধরণের তৎপরতা মোকাবেলার আহ্বান জানিয়েছেন।

সোমবার ইসরায়েলের ইহুদিরা আল-বীর আল-সান মসজিদে আগুন দেয়। শহরটি জেরুজালেম আল-কুদস শহর থেকে ১৫ কিলোমিটার উত্তরে। মসজিদে আগুন লাগানোর আগে তারা আরব ও ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে বর্ণবাদী স্লোগান দেয়।

ফিলিস্তিনের আওকাফ ও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ ঘটনার নিন্দা ও সমালোচনা করেছে। মন্ত্রণালয় বলেছে, এর মাধ্যমে তেল আবিবের বর্ণবাদী চরিত্র আবারো প্রকাশ হয়েছে।

ফিলিস্তিনি জরুরি সেবা বিভাগের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, ভোরের দিকে মসজিদের জানালা দিয়ে ভেতরে বিস্ফোরক তরল ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়।

১৯৬৭ সালের মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধের সময় পশ্চিম তীর দখলে নেয় ইসরায়েল। বর্তমানে এই এলাকায় ফিলিস্তিনের ৩০ লাখ মানুষের পাশাপাশি প্রায় ৪ লাখ বসতি স্থাপনকারী বসবাস করছেন। সূত্র: পার্স টুডে, সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য