বিশ্বজুড়ে কোভিড-১৯ সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের সম্ভাবনার মুখে এশিয়া, ইউরোপের কয়েকটি দেশসহ বিশ্বের অনেকগুলো দেশ নতুন করে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপের দিকে ঝুঁকছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সোমবার এশিয়ার ভিয়েতনামসহ কয়েকটি দেশ নতুন করে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে, ব্রিটেনে আকস্মিকভাবে স্পেন থেকে আসা ভ্রমণকারীদের ক্ষেত্রে কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক করায় ইউরোপে গ্রীষ্মকালে ফের সবকিছু খুলে দেওয়া নিয়ে বিভ্রান্তি দেখা দিয়েছে।

জুন থেকে কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে থাকা যুক্তরাষ্ট্র এখনও সংক্রমণের প্রথম ঢেউ মোকাবিলা করছে। শনাক্ত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যায় বিশ্বের শীর্ষে থাকা দেশটির প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও’ব্রায়ানের স্বাস্থ্য পরীক্ষায় করোনাভাইরাস ‘পজিটিভ’ এসেছে। দেশটির এ ভাইরাসে আক্রান্ত সবচেয়ে উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা তিনি।

এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, বেশ কয়েকদিন ধরে ট্রাম্পের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ হয়নি এবং প্রেসিডেন্ট সংক্রমণের ঝুঁকিতে নেই।

ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আনা গেছে বলে ধারণা করা বেশ কয়েকটি দেশে নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধির খবর পাওয়া যাচ্ছে।

অস্ট্রেলিয়ায় দৈনিক সংক্রমণ বৃদ্ধির নতুন রেকর্ড হয়েছে। মেলবোর্নে নতুন প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ার পর কর্মকর্তারা দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহরটিতে ছয় সপ্তাহের আংশিক লকডাউন ঘোষণা করেছেন। বাসিন্দাদের সবার জন্য মাস্ক বাধ্যতামূলকও করা হয়েছে।

ভিয়েতনাম তিন মাসেরও বেশি সময় পর স্থানীয়ভাবে সংক্রমণ ঘটার কথা নিশ্চিত করেছে। মধ্যাঞ্চলীয় পর্যটন শহর দানাং থেকে ৮০ হাজার পর্যটককে সরিয়ে নিয়েছে তারা। কর্তৃপক্ষ দানাং কেন্দ্রীক সব ধরনের ফ্লাইট, বাস ও ট্রেন চলাচল স্থগিত করেছে।

গত বছরের শেষ দিকে চীনে প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল; প্রায় পাঁচ মাস পর দেশটি ফের স্থানীয়ভাবে সংক্রমিত রোগী শনাক্তের কথা জানিয়েছে।

হংকং দুই জনের বেশি একত্র হওয়ার ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। পাশাপাশি রেস্তোরাঁয় খাওয়াও বন্ধ করে দিয়েছে এবং জনসম্মুখে ফেইস মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে।

রেকর্ড রোগী শনাক্ত হওয়ার পর মধ্যপ্রাচের ওমানে শনিবার থেকে নতুন করে দুই সপ্তাহের বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে। এ বিধিনিষেধের কারণে দেশটিতে ঈদুল আজহা পালনও বিঘ্নিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

স্পেনে সম্প্রতি করোনাভাইরাস সংক্রমণ নতুন করে বাড়তে শুরু করেছে। বার্সেলোনাসহ আরো কিছু অঞ্চলে জনগণকে আবারও ঘরে থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

এর জেরে শনিবার স্পেনীয়দের জন্য যুক্তরাজ্য ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনের নিয়ম চালু করেছে। এতে পর্যটনের জন্য ইউরোপের দ্বার খুলতে কয়েকমাস ধরে নেওয়া প্রস্তুতি ভেস্তে গেছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলেছে, সংক্রমণ প্রতিরোধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা দীর্ঘমেয়াদী কোনো সমাধান নয়। ভাইরাসের বিস্তৃতি ঠেকাতে সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক পরার মতো প্রমাণিত কৌশল অবলম্বনের পরামর্শ দিয়েছে তারা।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য