মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী) সংবাদদাতা ॥ নীলফামারীর সৈয়দপুর পৌরসভার হতদরিদ্র মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ভিজিএফ এর চাল বিতরণ কাজ উদ্বোধন করলেন পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার।

২৬ জুলাই রবিবার সকালে পৌর চত্বরে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন পৌর প্যানেল মেয়র জিয়াউল হক জিয়া, ট্যাগ অফিসার আনসার ভিডিপি ব্যাংকের ম্যানেজার মোজাহিদুল ইসলামসহ কাউন্সিলরবৃন্দ।

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে এবার পৌরসভার প্রায় ৪ হাজার ৬২১ জন গরীব অসহায় মানুষের মাঝে ১০ কেজি করে সর্বমোট ৪৬.২১০ মেট্রিক টন চাল বিতরণ করা হবে। ওয়ার্ড ভিত্তিক এ চাল বিতরণ আগামী ৩ দিন পর্যন্ত চলবে বলে জানা গেছে।

চাল বিতরণ উদ্বোধনকালে পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার উপস্থিতদেরসহ পৌরবাসীর প্রতি পবিত্র ঈদুল আজহার অগ্রীম শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, চলমান করোনা পরিস্থিতিতে এবার ঈদ স্বাস্থ্য সচেতনতার সাথে পালন করতে হবে। প্রয়োজনীয় স্বাস্থবিধি মেনে সকল কার্যক্রম সম্পাদনের আহ্বান জানান তিনি।

এদিকে সৈয়দপুর শহরের কুন্দল পশ্চিপপাড়ায় একটি রাস্তার সংস্কার কাজের উদ্বোধন করেছেন পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার। ২৬ জুলাই রবিবার দুপুরে কোদাল ধরে মাটি কেটে উদ্বোধন কালে অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক, পৌরসভার নির্বাহী প্রকৌশলী আইয়ুব আলী, উপসহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) আব্দুল খালেক, উপসহকারী প্রকৌশলী (সিভিল) কামরুল ইসলাম, সানফ্লাওয়ার স্কুল এন্ড কলেজের ইংরেজী প্রভাষক রেজাউল আলম, সৈয়দপুর কলেজের হিসাব রক্ষক গোলজার হোসেন।

সৈয়দপুর-দিনাজপুর মহাসড়ক থেকে কুন্দল পশ্চিমপাড়া মসজিদ নুরে মদিনা পর্যন্ত রাস্তাটি দীর্ঘদিন থেকে নষ্ট হয়ে চলাচলে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছিল। এলাকাবাসী রাস্তাটি সংস্কারের জন্য বার বার দাবী জানানোর প্রেক্ষিতে পৌর মেয়র অধ্যক্ষ মোঃ আমজাদ হোসেন সরকার নিজ উদ্যোগে রাস্তাটি সংস্কারের কাজ শুরু করেন। রাস্তার উত্তর পাশ দিয়ে ড্রেন নির্মান করা হবে। এতে এলাকার পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থারও অচলাবস্থা দূর হবে।

কাজ উদ্বোধনকালে মেয়র বলেন, সৈয়দপুর পৌরসভার প্রতিটি এলাকার সমানভাবে উন্নয়ন সাধন করা হবে। তাই যেখানেই কোন সমস্যা দেখা দিবে সেখানেই তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নিয়ে জনসেবার দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হবে। এরই সূত্র ধরে পৌর এলাকার প্রতিটি সড়ক ও ড্রেণ সংস্কার বা নতুন করে নির্মাণ দ্রুততার সাথে সম্পাদনে আমরা বদ্ধ পরিকর। এ রাস্তাটি সংস্কার কাজ সম্পন্ন হলে এলাকাবাসীর চলাচল সহজ হবে এবং ড্রেনের ফলে জলাবদ্ধতা দূর হবে। এসময় তিনি নুরে মদিনা মসজিদের জন্য প্রয়োজনীয় পাখা ও লাইটিং ব্যবস্থা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন এবং পৌর প্রকৌশলীদের এ ব্যপারে নির্দেশনা প্রদান করেন।

এলাকাবাসী পৌর মেয়রের এ উদ্যোগে অত্যন্ত আনন্দ প্রকাশ পূর্বক তার জন্য দোয়া করেন এবং সৈয়দপুর কলেজের পাশ^বর্তী উত্তর দিকের রাস্তা নির্মাণের জন্য তার সদয় দৃষ্টি কামনা করেন। এতে পৌর মেয়র সম্মতি প্রদান করেন এবং অচিরেই রাস্তাটি নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানান।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য