যুক্তরাজ্যের টেক্সাস রাজ্যের রাজধানী অস্টিনে বর্ণবাদবিরোধী ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ প্রতিবাদ চলাকালে গুলিবর্ষণের ঘটনায় একজন নিহত হয়েছেন।

শনিবারের ওই ঘটনার সময় বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি করা হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষের বরাতে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে অস্টিন পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, শনিবার রাতে অস্টিনের কেন্দ্রস্থলে ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার প্রতিবাদ চলাকালে প্রাণঘাতী গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে, এ ঘটনায় পুলিশ এক সন্দেহভাজনকে আটক করেছে।

ফেইসবুকে প্রতিবাদের লাইভ সম্প্রচারের এক পর্যায়ে বেশ কয়েকটি গুলির শব্দ শোনা গেছে। এ সময় প্রায় ১০০ প্রতিবাদকারী ‘মুষ্টিবদ্ধ হাত তোল! পাল্টা লড়াই কর!’ শ্লোগান দিয়ে মিছিল নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছিল।

অস্টিনের পুলিশ ও ইমার্জেন্সি মেডিকেল সার্ভিসেস (ইএমএস) টুইটারে জানিয়েছে, গুলিবর্ষণ চলাকালে একজন নিহত হন। ইএমএস বিভাগের ভাষ্য অনুযায়ী, এ ঘটনায় আর কেউ হতাহত হয়নি।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রাথমিক প্রতিবেদনেগুলোতে বলা হয়েছে, সন্দেহভাজনের কাছে একটি রাইফেল ছিল তা দিয়ে সে গাড়িতে থাকা এক ব্যক্তিকে গুলি করে, ওই ব্যক্তিকে হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়।

মে মাসে মিনিয়াপোলিসে পুলিশের নির্যাতনে নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড নিহত হওয়ার পর বর্ণবাদ ও পুলিশি নির্যাতনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ও পরে বিশ্বব্যাপী ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে। একজন শ্বেতাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা ফ্লয়েডকে আটক করার সময় তাকে রাস্তায় ফেলে তার ঘাড়ে পা তুলে দিয়ে প্রায় নয় মিনিট চেপে ধরে রাখে, এ সময়ই তার মৃত্যু হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য