দিনাজপুর সংবাদাতাঃ যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামকে হারিয়ে দেশ শুধুমাত্র একজন বড় শিল্পোদ্যোক্তাকে হারায়নি, গণমাধ্যম জগতও একজন বড় শুভাকাংখীকে হারিয়েছে। কারন দেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্যে সাহসিকতার সাথে তিনি দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশনকে দেশের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যমে পরিণত করেছেন। দেশের মানুষের কণ্ঠস্বর তুলে ধরার পাশাপাশি তার সততা, কর্মদক্ষতার মাধ্যমে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলার মাধ্যমে বেকারত্ব দুরীকরনে ভুমিকার কথা দেশবাসী কখনও ভুলবেন না। কর্মের মধ্য দিয়েই মানুষের মাঝে চিরদিন বেঁচে থাকবেন যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম।

দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা, দেশের সফল শিল্পোদোক্তা যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের মৃতুতে আয়োজিত এক শোক সভা ও দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন বক্তারা।

দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বৃহস্পতিবার বিকাল ৫টায় এই শোকসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে দিনাজপুর প্রেসক্লাব ও যুগান্তর স্বজন সমাবেশ, দিনাজপুর।

দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি স্বরূপ কুমার বক্সী বাচ্চুর সভাপতিত্বে ও যুগান্তরের দিনাজপুর প্রতিনিধি একরাম তালুকদারের সঞ্চালনায় শোকসভায় বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টি দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক আহমেদ শফি রুবেল, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি কংকন কর্মকার, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক রতন সিং, দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ইদ্রিস আলী, যমুুনা টেলিভিশনের দিনাজপুর প্রতিনিধি মাহফুজুল হক আনার, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষ রফিকুল ইসলাম ফুলাল, নিউজ ২৪ এর দিনাজপুর প্রতিনিধি ফখরুল হাসান পলাশ, দিনাজপুর প্রেসক্লাবের তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক কৌশিক বোস, যুগান্তরের বিরল উপজেলা প্রতিনিধি আতিউর রহমান।

শেষে যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম-এর রূহের মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন, দিনাজপুর কোতয়ালী থানা জামে মসজিদের পেশ ঈমাম মাওলানা মোঃ আব্দুর রহিম।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য