দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ২ দিন ব্যাপী বিভিন্ন অভিযান চালিয়ে সদরের বিভিন্ন এলাকায় বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল, ইয়াবা ও গাঁজাসহ ৪ জন কে আটক করা হয়েছে।

ঘটনাসূত্রে জানা যায় যে, সদরের মোহনপুর এলাকার আমবাগানে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ২শত বোতল ফেন্সিডিলসহ সদরের দাইনুর সরকারপাড়া এলাকার মোঃ শাহাজাহান আলীর পুত্র মোঃ সাকাওয়াত হোসেন (২৫) কে নিজ দখলীয় বাদ্য যন্ত্রের বক্সের ভিতর সু-কৌশলে রাখা অবস্থায় উক্ত বক্সটি নিয়ে আমবাগান মোড়স্থ তিন রাস্তার মোড়ে দুপুর আড়াইটার সময় অপেক্ষামান অবস্থায় তাকে আটক করা হয়।

একই দিনে সদরের নশিপুর এলাকায় আট বিল্ডিং এর পশ্চিম পার্শ্বের রাস্তায় গোপনসূত্রের ভিত্তিতে সন্দেহভাজন ব্যক্তির দেহ তল্লাশী করলে তার নিকট ১শত ৫০ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়।

ইয়াবা বহনকারী বিরল উপজেলার কামদেপুর পশ্চিম বনগাঁও এলাকার মোঃ সামসুল হকের পুত্র মোঃ আনারুল ইসলাম (৪০)। উক্ত দিনের রাত ৯ টায় সদরের দক্ষিণ কোতয়ালীর সুন্দুরা মংলা বাজার গ্রামস্থ পশ্চিম পার্শ্বে পাকা রাস্তার বাম পার্শ্বে ৬০ বোতল ফেন্সিডিল প্লাস্টিকের বস্তায় মধ্যে মোড়ানো একটি ব্যাগ নিয়ে রাস্তায় অপেক্ষামান ফেন্সিডিল আরহিকে আটক করা হয়।

আটকৃত ফেন্সিডিল ব্যবসায়ী দক্ষিণ কোতয়ালীর সুন্দুরা জুলুকাপাড়ার মোঃ গোলাম মোস্তাফার পুত্র মোঃ বাপ্পী ইসলাম (২৫) । এ সকল বিষয় দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় ৪টি ২০১৮ সমাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়।

উক্ত অভিযান গুলো দিনাজপুর জেলার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ রাজিউর রহমানের নেতৃত্ত্ব পরিদর্শক মোঃ লোকমান হোসেন, উপ-পরিদর্শক শ্রী গুনধর রায়, মোঃ হাবিবুল হাসান, মিশকাতুল জাবির পরিচালনা করেন।

অপর দিকে ২২ জুলাই দিনাজপুর জেলার চিরিরবন্দর থানার ছোটবাউল গ্রামের মৃত. শশি মোহন এর পুত্র শ্রী পুলিন রায়কে নিজ বসতবাড়ী থেকে ১ কেজি গাঁজাসহ আটক করা হয়। এছাড়াও শহরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যে ২ জন কে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য