হাউস্টনে অবস্থিত চীনা কনস্যুলেট বন্ধ করে দেওয়ার জন্য বেইজিংকে নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। কনস্যুলেট চত্বরে কিছু নথি পুড়িয়ে দেওয়ার ভিডিও প্রকাশের পর এ নির্দেশ দেওয়া হলো। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, শুক্রবারের (২৪ জুলাই) মধ্যে কার্যালয়টি বন্ধ করে দিতে বলা হয়েছে। এ পদক্ষেপকে ‘রাজনৈতিক উসকানি’ বলে উল্লেখ করেছে চীন।

হাউস্টনে বিপুল সংখ্যক এশীয় বসবাস করে। তাদের পাশাপাশি মার্কিন নাগরিকদের ভিসা দেওয়ার সুবিধার্থে সেখানে দূতাবাস খুলেছিল চীন সরকার। তবে করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হওয়ার পর থেকে ভিসা দেওয়ার কাজ বন্ধ রয়েছে। মঙ্গলবার প্রকাশ হওয়া বেশ কয়েকটি ভিডিওতে দেখা গেছে, কয়েকজন ব্যক্তি কনস্যুলেট চত্বরে কিছু নথি পুড়িয়ে দিচ্ছে।

সেখানকার কর্মকর্তারা বহু নথিপত্র পুড়িয়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এর পরপরই কনস্যুলেটটি বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে বিবৃতি প্রকাশ করে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর। এতে বলা হয়, ‘আমেরিকান ইন্টেলেকচুয়াল প্রপার্টিকে সুরক্ষিত রাখার স্বার্থে’ এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের এ সিদ্ধান্তকে অন্যায্য বলে উল্লেখ করেছেন চীনা পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন।

কনস্যুলেট বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার জন্য ওয়াশিংটনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বেইজিং। তা না হলে পাল্টা ব্যবস্থা নেওয়ারও হুমকি দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য