চলাফেরা করতে একটি হুইল চেয়ারের আকুতি জানিয়েছে প্রতিবন্ধী কিশোর আরাফাত রহমান উৎস। সে কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার রায়গঞ্জ ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ড, সাপখাওয়া গ্রামের জাকিরুল ইসলামের ছেলে।

১৪ বছরের কিশোর উৎস’র এই বয়সে স্কুলে যাওয়া ও ঘুরে বেড়ানোর কথা থাকলেও অসহায় জীবন যাপন করতে হচ্ছে তাকে। দুই হাত ও দুই পা অচল হওয়ায় হাঁটা চলাসহ কোনোকিছু করার সাধ্য নেই তার।

এমনকী কথা বলার বাকশক্তিটুকুও নেই তেমন। শারীরিক প্রতিবন্ধকতা তাকে ঘরবন্দী করে রেখেছে। ঠেলে দিয়েছে অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে। আরাফাতের পরিবার জানায় জন্ম থেকেই পঙ্গু সে।

জন্মের পর থেকে ছেলের চিকিৎসায় ব্যয় করতে গিয়ে সব হারিয়ে এখন নিঃস্ব প্রায়। এদিকে বৈশ্বিক মহামারী করোনার প্রভাবে উপার্জনও নেই দিনমজুর বাবার। আয় না থাকায় ছেলের ওষুধপত্র এবং সংসারের খরচ যোগাতেও হিমশিম খাচ্ছেন তিনি।

তাই অসহায় আরাফাত রহমান উৎস সহৃদয়বান ও দানশীল ব্যাক্তিদের নিকট একটি হুইল চেয়ারের আকুতি জানিয়েছেন। এছাড়াও সরকারি বা বেসরকারি সুযোগ সুবিধা পেলে ভবিষ্যতে সুস্থ হওয়ার স্বপ্ন দেখছে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টিও কামনা করেছে উৎস।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য