আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মনিটরিংয়ে অভিযান চালিয়ে শফিক ইসলাম নামে এক ভেটেরিনারি ওষুধ ব্যবসায়ীর ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (১৩ জুলাই) সন্ধ্যার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মশিউর রহমানের নেতৃত্বে এ আদালত পরিচালিত হয়। দন্ডপ্রাপ্ত শফিক ইসলাম বুড়িমারী ইউনিয়নের উফারমারা গুড়িয়াটারী এলাকার মো. রফিকুল ইসলামের ছেলে।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত গবাদি পশুর ওষুধ নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে প্রায় পাঁচগুণ বেশি দামে বিক্রি করার অপরাধে বুড়িমারী বাজারের ভেটেরিনারি ওষুধের দোকানদার মো. শফিক আলমকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ‘গবাদি পশুর ওষুধ বাজারে স্বল্পতা রয়েছে এমন অজুহাতে উপজেলার বিভিন্ন বাজারে ওষুধের দাম সর্বোচ্চ খুচরা মূল্যের অনেক বেশী দামে বিক্রি করছে দোকানদাররা-এমন সংবাদের ভিত্তিতে ওইদিন বুড়িমারী বাজারে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ সময় গবাদি পশুর ওষুধ (ভেটেরিনারি) ব্যবসায়ী মো. শফিক আলমের ওষুধের দোকানে ২৮ টাকা দামের ওষুধ ১০০ টাকা, ৪ টাকা দামের ওষুধ ১৫ টাকা ও ২ টাকা ৫০ পয়সা দামের ওষুধ ১৫ টাকা দামে বিক্রি করছিলেন। এ অপরাধে ভোক্তা অধিকার আইনে ওই ব্যবসায়ীর ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

পাটগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ( ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মশিউর রহমান জানান, ‘ভেটেরিনারি ওষুধের দাম বেশি নিচ্ছে ব্যবসায়ীরা এমন সংবাদের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। বুড়িমারী বাজারের গবাদি পশুর ওষুধ ব্যবসায়ী মো. শফিক আলমের দোকানে নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে প্রায় পাঁচ গুণ বেশি দামে ওষুধ বিক্রি করার অপরাধের পরিপেক্ষিতে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মনিটরিংয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।’

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য