দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর রাজদেবোত্তর এস্টেটের নির্বাহী কমিটির ১ম সভা ১৩ জুলাই সোমবার বিকাল ৫ টায় দিনাজপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন দিনাজপুর জেলা প্রশাসক ও দিনাজপুর রাজদেবোত্তর এস্টেটের সভাপতি মোঃ মাহমুদুল আলম।

এতে বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা (রাজস্ব) ও রাজদেবোত্তর এস্টেটের সহ-সভাপতি আবু সালেহ মোঃ মাহফুজুল আলম, দিনাজপুর রাজদেবোত্তর এস্টেটের এজেন্ট ও সদস্য সচিব রনজিৎ কুমার সিংহ, সদস্য শ্যামল কুমার ঘোষ, এ্যাড. সরোজ গোপাল রায়, ডাঃ ডি.সি রায়, বিরল উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রমা কান্ত রায়, গোপেশ চন্দ্র রায়, গৌর চন্দ্র শীল, এ্যাড. দিলীপ চন্দ্র পাল, সঞ্জয় মিত্র, বিমল চন্দ্র দাস, দিনাজপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায় প্রমূখ।

সভায় জেলা প্রশাসক মাহমুদুল আলম বলেন, রাজদেবোত্তর এস্টেট শুধু হিন্দুদের সম্পত্তি নয়, এটা জাতীয় সম্পদ। এটাকে রক্ষা করার দায়িত্ব সবার। বিশেষ করে হিন্দু সম্প্রদায় তথা বর্তমান কমিটিকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ যেন নির্বিঘ্নে তাদের পুজা-অর্চনা করতে পারে, সে ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। বর্তমান নতুন কমিটিকে এ কাজে সফল হতে হবে।

সভায় সিদ্ধান্ত হয়-রাজদেবোত্তর এস্টেটে যিনি সম্পত্তি দিয়েছে, শীঘ্রই তার ম্যূরাল স্থাপন করা হবে। আরও সিদ্ধান্ত হয় যে, করোনা ভাইরাসের এই বৈশ্বিক মহামারীর সময় নির্দিষ্ট সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আগামী জন্মাষ্টমী উদযাপন করতে হবে। সেই সাথে আগামী দূর্গাপুজার আগেই রাজবাড়ীর পুজা স্থানের জমাটবদ্ধ পানি নিষ্কাষনের ব্যবস্থা করাসহ নতুন রাজদেবোত্তর কমিটিকে অনেকগুলো কাজ করতে হবে।

সেগুলো করতে পারলে এ কমিটি সফল হবে বলে আশা প্রকাশ করেন জেলা প্রশাসক। উল্লেখ্য, দিনাজপুর রাজদেবোত্তর সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা ও এস্টেটের স্বার্থ রক্ষার্থে সম্প্রতি আগামী ৪ বছরের জন্য দিনাজপুর রাজদেবোত্তর এষ্টেটের পরিচালনা কমিটি গঠন করা হয়।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য