রংপুর নগরীর মর্ডাণে দুই মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় মোটর সাইকেলের আগুনে দগ্ধ হয়ে চালকসহ ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

এর মধ্যে দুই জনের অবস্থা আশংষ্কাজনক বলে জানা গেছে। খবর পেয়ে তাজহাট থানা পুরিশ আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে। আহতরা বর্তমানে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নগরীর মর্ডাণ মোড়ের পার্শ্ববর্তী রংপুর মডেল কলেজ গেটের সামনে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

এদিকে আহত ৫ জনের মধ্যে দুইজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। আহতরা হলেন, রংপুর নগরীর ডিসির মোড় এলাকার আলমগীর হোসেন (৪৫) ও নগরীর ৩১ নং ওয়ার্ডের পানবাড়ি গ্রামের আরিফুজ্জামান আরিফ মাস্টার (৪৫)। এরা দুইজনেই মোটর সাইকেলের চালক ছিলেন। এর মধ্যে আরিফের পুরো শরীর আগুনে পুড়ে গেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রংপুর-ঢাকা মহাসড়কের রংপুর মডেল কলেজের গেটের সামনে ডিসকভার ও পালচার দুইটি মোটর সাইকেল ওভারটেকের সময় মুখোমুখি সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় একটি চলন্ত বাস ডিসকভার মোটর সাইকেলকে ধাক্কা দিলে আগুন ধরে যায়। সেই আগুনে দগ্ধ হয়ে চালকসহ অন্য ৪জন গুরুতর আহত হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী আসাদুজ্জামান জানান, রংপুর মডেল কলেজের সামনে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। মুলত ওভারটেক করার সময়ে এক বাসের ধাক্কায় মোটর সাইকেলে আগুন লাগে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে আরপিএমপি তাজহাট থানার ওসি শেখ রোকনুজ্জামান বলেন, সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুনে দগ্ধ ১জনসহ গুরুতর জখম ও রক্তমাখা অবস্থায় ৪জনকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তাদের চিকিৎসার জন্য দ্রুত রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদের মধ্যে দুই মোটর সাইকেল চালকের নাম ঠিকানা পাওয়া গেলেও বাকি ৩জন অজ্ঞাত রয়েছে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য