দিনাজপুর সংবাদাতাঃ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি এ্যাডভোকেট জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই বলেছেন, আমাদের মোট জনসংখ্যার বৃহৎ অংশ নারী। যে কোন প্রাকৃতিক দূর্যোগ বা মহামারীতে সবচেয়ে ঝুঁকির মধ্যে থাকে নারী এবং কিশোরী। তাদের বাদ দিয়ে জাতীয় উন্নয়ন আশা করা যায় না।

নারী ও কিশোরীদের জীবন এই সময় বিপন্ন হয়ে উঠে সুরক্ষার অভাবে। ১১ জুলাই শনিবার বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস-২০২০ইং উদযাপন উপলক্ষে দিনাজপুর জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে বেলা সাড়ে ১১টায় আলোচনা সভা এবং জেলা ও সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ কর্মী ও প্রতিষ্ঠানের মাঝে সনদপত্র ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এমপি জুঁই আরো বলেন, দিনাজপুর জেলার পরিবার পরিকল্পনা কার্যক্রমে জাতীয় পর্যায়ের চেয়ে অনেক বেশী অর্জন করেছে।

এবার বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসে রংপুর বিভাগের ১০টি শ্রেষ্ঠ পুরস্কারের মধ্যে দিনাজপুর জেলা ৫টি কর্মী ও প্রতিষ্ঠান শ্রেষ্ঠ পুরস্কার পেয়েছে। এতে দিনাজপুর জেলার পরিবার পরিকল্পনা কর্মীদের ভূয়শী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, বর্তমান শেখ হাসিনার সরকার স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ বিভাগের প্রতি বিশেষ যতœবান যেমন, ইউনিয়ন ও ইউনিট পর্যায়ের কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোকে চালু করেছেন এবং স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন উন্নতি সাধন করেছেন। জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয় দিনাজপুরের আয়োজনে অনুষ্ঠিতব্য অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলমের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার, সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ দিনাজপুরের উপ-পরিচালক ডাঃ আবু নছর মোঃ নুরুল ইসলাম চৌধুরী প্রমুখ।

“মহামারি কোভিড-১৯ কে প্রতিরোধ করি, নারী ও কিশোরীর সুস্বাস্থ্যর অধিকার নিশ্চিত করি”-এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে জেলা পঃপঃ অফিসের প্রজেক্টশনিষ্ট অমল কুমার সরকারের সঞ্চালনায় অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন ডাঃ গোপীনাথ বসাক, প্রান্তোষ কুমার সরকার ও এফপিএবি’র প্রোগ্রাম কো-অর্ডিনেটর শাহিনুর ইসলাম। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রজেক্টরের মাধ্যমে পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ে বিভিন্ন কার্যক্রম উপস্থাপনা করেন ডাঃ মোঃ রেজাউল হক।

দ্বিতীয় পর্বে জেলা ও সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ কর্মী ও প্রতিষ্ঠানের মাঝে সনদপত্র ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য সদর উপজেলার ৯টি ইউএইচএন্ডএফডাব্লিউসি সংস্কার এবং এ্যাডলোসেন্ট হেলথ্ কর্ণার স্থাপনের জন্য অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এমপি এ্যাডভোকেট জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই ৩ লক্ষ টাকা বিশেষ অনুদানের ঘোষনা দেন।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য