দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুর সদর উপজেলায় ১০ হাজার মানুষের চলাচলের একমাত্র সড়কটি রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন করেছে কয়েক শত সাধারণ মানুষ।

বৃহস্পতিবার (৯ জুলাই) দুপুরে দিনাজপুর সদর উপজেলার ৩নং ফাজিলপুর ইউনিয়নের ঝানজিরা বালু ঘাটে এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেন। গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি উপেক্ষা করে মানববন্ধনে কয়েক শত মানুষ অংশ নিয়ে চলাচলের একটি মাত্র রাস্তা রক্ষার দাবী জানান।

মানববন্ধন চলাকালীন সমাবেশে বক্তারা বলেন, ঝানজিরা বালু ঘাটতি চলতি বছরের ১৪ এপ্রিল থেকে সদর উপজেলার রানীগঞ্জ বাজারের জনৈক রক্তিম বসাক ঘাটটি সরকারীভাবে ইজারা নেন। ইজারার নেয়ার পর থেকে তিনি ঘাটটিতে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন ও স্কেভেটর মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করতে থাকেন। ইজারা নেয়ার কিছু দিন পর তিনি ১০ চাকার ও ৬ চাকার ড্রাম ট্রাকে বালু নিয়ে যাওয়া শুরু করেন। ঘাটটি মূল সড়ক থেকে প্রায় সোয়া কিলোমিটার দুরে অবস্থিত। এই সোয়া কিলোমিটার কাচা রাস্তায় ড্রাম ট্রাক চলাচলের ফলে রাস্তাটি সাধারণ মানুষের চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এই সড়ক দিয়ে আশপাশের কয়েকটি গ্রামে প্রায় ১০ হাজার মানুষের চলাচল। বড় ট্রাক চালানোর ফলে রাস্তাটির মধ্যে গ্রামবাসী কর্তৃক নির্মিত কালভাটটি ভেঙ্গে গেছে।

এলাকাবাসী দবিরুল ইসলাম জানান, নদীতে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলনের ফলে নদীর দুপাশে ভুমিধ্বসের মত ঘটনা ঘটছে। এই ঘাটটির পাশে একটি খেয়া ঘাট অবস্থিত। চলাচলের রাস্তা বন্ধ হওয়ায় এই খেয়া ঘাটতি বন্ধ হয়ে গেছে। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে বড় ট্রাক চালানোর প্রতিবাদ করায় ঘাট ইজারাদার এলাকাবাসীদের নামে একটি ভুয়া মামলা করেছে। আমরা অবিলম্বে নষ্ট হওয়া সড়ক ও কালভাট নির্মান করে দেয়া ও ভুয়া মামলা তুলে নেয়ার দাবী জানাচ্ছি।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য