দিনাজপুর সংবাদাতাঃ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ থানা পুলিশ গৃহবধূকে ধর্ষনের চেষ্টার মামলায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো উপজেলার পুটিমারা ইউনিয়নের মতিহারা গ্রামের আঃ খালেক সর্দারের ছেলে ফজলে রাব্বী (৪৬) ও আতাউর রহমান সর্দার (৩৬)। গ্রেফতারকৃতদের আজ মঙ্গলবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

পুলিশ জানায় গ্রেফতারকৃত ফজলে রাব্বী গত ৬ জুলাই রাত আনুমানিক পৌনে ৯ টার সময় উপজেলার পুটিমারা ইউনিয়নের কালিয়া গ্রামের ভ্যানচালক সেকেন্দার আলীর স্ত্রী (৩৫) কে বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগে জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে।

এ সময় ওই গৃহবধূর চিৎকারে প্রতিবেশিরা এসে ফজলে রাব্বীকে আটক করে। এরপর কে বা কারা ফজলে রাব্বীকে আটক করে রাখা হয়েছে বলে তার পরিবারের সদস্যদের নিকট মোবাইল ফোনে সংবাদ দেয়।

সংবাদ পেয়ে ফজলে রাব্বীর পরিবারের সদস্যরা ঘটনাস্থলে এসে ফজলে রাব্বীকে ছিনিয়ে নেয়া সহ মারপিট ও ভাংচুর করে।

এ ঘটনায় ধর্ষনের চেষ্টার শিকার গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে ৪ জনকে অভিযুক্ত করে নবাবগঞ্জ থানায় জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা ও বাড়ীতে অনধিকার প্রবেশ পূর্বক মারপিট সহ ভয়ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ আনয়ন করে রাতেই একটি মামলা দায়ের করে।

ওই মামলায় পুলিশ রাতেই আসামীদের গ্রেফতার করে।

মন্তব্য লিখুন (ফেসবুকে লগ-ইন থাকতে হবে)

মন্তব্য